শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৩১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ জুলাই, ২০১৯ ০২:১৬

শুল্কমুক্ত বস্ত্রপণ্য আমদানি করতে চাচ্ছে সংসদীয় কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

বস্ত্র উৎপাদনে তাঁতীদের সুবিধা দিতে শুল্কমুক্ত বস্ত্রপণ্য আমদানি করার কথা বিবেচনা করছে সংসদীয় কমিটি। এ জন্য বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের মাধ্যমে বস্ত্র খাত সম্পর্কিত কী কী পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধায় আমদানি করা যায়, তার একটি তালিকা চেয়েছে কমিটি। একই সঙ্গে আগামী বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ৪র্থ বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মির্জা আজম। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, মো. ইসরাফিল আলম, রনজিত কুমার রায়, মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী, শাহীন আক্তার, আবদুল মমিন ম ল, খাদিজাতুল আনোয়ার এবং তামান্না নুসরাত (বুবলী) বৈঠকে অংশ নেন।

সংসদ সচিবালয়ের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস করপোরেশন (বিটিএমসি)-এর অধীনস্থ ২৫টি মিলের মধ্যে ভাড়ায় চলছে ৬টি মিল। বন্ধ আছে ১৯টি মিল।

কমিটির সদস্যরা বন্ধ মিলগুলো চালুর বিষয়ে বিভিন্ন বিষয় পর্যালোচনা করে পদক্ষেপ নেওয়ার সুপারিশ করে।বৈঠকে আরও জানানো হয়, বস্ত্র অধিদফতর কর্তৃক মাদারীপুর জেলার শিবচরে বাস্তবায়নাধীন ‘শেখ হাসিনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ’ নির্মাণ প্রকল্পটি সমাপ্ত হলে উক্ত প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতি বছর ১২০ জন করে নির্বাহী পর্যায়ের টেক্সটাইল প্রযুক্তিবিদ তৈরি করা সম্ভব হবে। এ ছাড়া স্থায়ী কমিটির সুপারিশ মোতাবেক জামালপুর জেলায় ‘শেখ হাসিনা তাঁত পল্লী স্থাপন প্রকল্প’-এর বাস্তবায়নের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে দ্রুত সম্পাদন করার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানানো হয়।

এ ছাড়া দেশে-বিদেশে পাটজাত পণ্য মেলা আয়োজনের লক্ষ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে বিশেষ বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। কমিটি পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইনের প্রয়োগ ও বাস্তবায়নের জন্য পাট অধিদফতরের প্রতি সুপারিশ করে।

বৈঠকে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব, বিজেএমসি, বিটিএমসি, তাঁতবোর্ড ও বিজেসির চেয়ারম্যান, পাট অধিদফতর ও বস্ত্র অধিদফতরের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর