Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ আগস্ট, ২০১৯ ২৩:১৫

আওয়ামী লীগ-বিএনপিতে কোন্দল ঘর গোছাচ্ছে জামায়াত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

আওয়ামী লীগ-বিএনপিতে কোন্দল ঘর গোছাচ্ছে জামায়াত

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’তে নেতৃত্বের কোন্দল থাকলেও গোপনে দল গোছাচ্ছে জামায়াত। দলের কোন্দলকে পুঁজি করে অনৈতিক কর্মকান্ডে  জড়িয়ে পড়ছে ছাত্রলীগ। টাকার বিনিময়ে বিক্রি করা হচ্ছে শ্রমিক লীগ, ছাত্রলীগ ও কৃষক লীগের পদ-পদবী।

আওয়ামী লীগ : জেলায় নেতৃত্বের কোন্দল চরম আকার ধারণ করেছে। পদ-পদবী নিয়ে শুরু হয়েছে বাণিজ্য। আর এ বাণিজ্যের সঙ্গে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, কৃষক লীগ ও ছাত্রলীগ জড়িয়ে পড়েছে এমন অভিযোগ এখন মুখে মুখে। অন্যদিকে কতিপয় ব্যক্তি ত্যাগী নেতা ধোয়া তুলে দলে নতুন আর পুরাতন নিয়ে কোন্দল সৃষ্টি করছেন। পুলিশের এক কর্মকর্তা সুবিধাবাদী নেতাদের মদদ দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য মো. আব্দুল ওদুদ। জানা গেছে, দলের মধ্যে ডা. আ আ ম বাচ্চু ডাক্তার গ্রুপ ও অ্যাডভোকেট সামশুল হক গ্রুপ থাকলেও রাজনৈতিক বাণিজ্য ছিল না। এমন পরিস্থিতিতে ২০০৫ সালে বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেন তৎকালীন মহারাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল ওদুদ এবং ২০০৮ সালে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালে আব্দুল ওদুদ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে দল গোছাতে শুরু করেন। কিন্তু জামায়াত-বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া কতিপয় ব্যক্তি      ক্ষমতাধর হয়ে উঠলে শুরু হয় নতুন-পুরাতন দ্বন্দ্ব, যা প্রকট আকার ধারণ করেছে। অন্যদিকে গোমস্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগে রয়েছে দুই সাবেক সংসদ সদস্যের বিরোধ। এক পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুহা. জিয়াউর রহমান এবং অন্য পক্ষে রয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য মুহা. গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস। অভিযোগ রয়েছে, শিবগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি করছেন একজন পুলিশ কর্মকর্তা। বিএনপি : নেতৃত্বের কোন্দল থাকায় বিএনপির কোনো আন্দোলন কর্মসূচি দেখা যায় না। নেতৃত্বের কোন্দলের একদিকে রয়েছেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশিদ এবং অপর পক্ষে রয়েছেন জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম টিপু ও সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য আমিনুল ইসলাম। জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম টিপু ও সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য আমিনুল ইসলাম পৃষ্ঠপোষকতা করছেন জেলা যুবদলের। অন্যদিকে সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশিদ পৃষ্ঠপোষকতা করছেন সদর থানা ও পৌর বিএনপি’র। অন্যান্য দল : জেলায় জাতীয় পার্টির কার্যক্রম নেই বললেই চলে। জাসদ (ইনু) বিভিন্ন কর্মসূচির পালন করে থাকে। যুদ্ধাপরাধীদের দল নামে খ্যাত জামায়াত প্রকাশ্যে দলীয় কার্যক্রম না করলেও শ্রমিক সংগঠনের নাম দিয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠান করছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান বিভিন্ন কৌশলে জামায়াত নেতা-কর্মীদের সংগঠিত করছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর