শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:২২

দুর্নীতিতে ইমেজ সংকটে বিএমডিএ

১২ কর্মকর্তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করার একদিন পরই বাতিল

কাজী শাহেদ, রাজশাহী

দুর্নীতিতে ইমেজ সংকটে বিএমডিএ

রাজশাহীর পবার শাহপুর থেকে হরিয়ান বিল পর্যন্ত ১৭ কোটি ব্যয়ে খাল খনন, দরপত্র, কোটেশন, বিদ্যুৎ ব্যবহার, বেতন বৃদ্ধি, ভ্যাট কর্তনসহ নানাকাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) বিরুদ্ধে। এ নিয়ে দফায় দফায় অডিট আপত্তি থাকা সত্ত্বেও একই কাজ করে চলেছে কর্তৃপক্ষটি। সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিশনের অভিযানে ৭ কোটি টাকার অনিয়ম ধরা পড়েছে। পুকুর খনন শিখতে ১৬ কর্মকর্তার বিদেশ যাওয়ার বিষয়টি প্রকল্পে রাখার পর বিএমডিএর এসব অনিয়মের চিত্র বের হতে শুরু করে। কৃষি মন্ত্রণালয়ের স্বায়ত্তশাসিত এ প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে পাঁচ বছরে কোটি টাকা ব্যয়ে সরকারি প্রকৌশলী ভবন নির্মাণ করেও সেখানে প্রকৌশলী না থাকা, পিপিআর অমান্য করে খন্ড খন্ড আকারে সরঞ্জমাদি ক্রয়ের মাধ্যমে সরকারি অর্থের ক্ষতি, গোদাগাড়ীতে প্রায় ৫০ লাখ টাকার হিসাব জালিয়াতিসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। দুর্নীতির এসব ঘটনা একের এক প্রকাশ্যে আসায় ইমেজ সংকটে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি। সম্প্রতি দুদকের জিজ্ঞাসাবাদের পর ১২ কর্মকর্তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হলেও একদিন পরই তা বাতিল করা হয়। ফলে বিএমডিএতে দুর্নীতির অভিযোগ যাদের বিরুদ্ধে, সেইসব কর্মকর্তারা এখনো বহাল থেকে তাদের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিএমডিএর নির্বাহী পরিচালক আবদুর রশিদ জানান, সম্প্রতি কিছু ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটি ইমেজ সংকটে পড়েছে। তারা এসব অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করতে বেশকিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন। অডিট আপত্তি সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘কাজ করতে গেলে অডিট আপত্তি উঠবেই। সেগুলো নিষ্পত্তিও হবে। তবে আমি কোনো অনিয়মের সঙ্গে জড়িত নই।’


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর