শিরোনাম
রবিবার, ১৭ মে, ২০২০ ০০:০০ টা

ঈদের আগে চলছে না যাত্রীবাহী ট্রেন

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম

করোনা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন ধরেই চলাচল করছে না বাংলাদেশ রেলওয়ের যাত্রীবাহী ট্রেন। বর্তমানে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খাদ্যশস্য, জ্বালানি ও কনটেইনার ছাড়াও ১ মে থেকে চালানো হচ্ছে পার্সেল ট্রেন। তবে ঈদুল ফিতরের আগে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করছে না। যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল না করলেও চলাচলের জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি রাখা হয়েছে। নির্দেশনা পেলেই যে কোনো সময় ট্রেন চালানো সম্ভব বলে জানান রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের এসিস্ট্যান্ট চিফ অপারেটিং সুপারিনটেন্ডেন্ট (এসিওপিএস) সাহেব উদ্দিন।

তিনি বলেন, বর্তমানে বিভিন্ন রুটে পার্সেল ট্রেনসহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ট্রেন চলাচল করছে। পার্সেল ট্রেন চট্টগ্রামন্ডভৈরব-ময়মনসিংহ-জামালপুর-সরিষাবাড়ী রুটে চলাচল শুরু করেছে। চট্টগ্রাম থেকে বিকালে ও সরিষাবাড়ী থেকে সকালে গন্তব্যের উদ্দেশে পণ্য পরিবহন করবে সার্ভিসটি। ঢাকা থেকে সংযোগ ট্রেন রয়েছে। সাপ্তাহিক বন্ধ না থাকায় ট্রেনটি প্রতিদিন উভয় মুখে চলাচল করছে। পার্সেল ট্রেনটিতে ছয়টি গাড়ি আছে। এর মধ্যে একটিতে গার্ড, অন্য পাঁচটি মালামাল বহন করছে। পূর্বাঞ্চলের প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী (সিএমই) ফকির মো. মহিউদ্দিন বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতির কারণে ২৪ মার্চ সন্ধ্যা থেকে সারা দেশে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। চলছে জরুরি প্রয়োজনে পার্সেল ট্রেনগুলো। দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বা রেল মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা পেলে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যে যাত্রীবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন, ওয়াগন, যাত্রী কোচ, খাবার গাড়ি ও প্রয়োজনীয় লোকবলসহ নানাবিধ প্রস্তুত রয়েছে। বর্তমান এমন পরিস্থিতিতে ঈদের আগে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করছে না। নাম প্রকাশ না করার শর্তে সাবেক ও বর্তমান একাধিক রেলওয়ে কর্মকর্তা বলেন, ঈদের আগেই কোনোভাবে সম্ভব নয় যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের। দেশের যে পরিস্থিতি চলছে ট্রেন চলাচল শুরু করলেই ধারণক্ষমতার বাইরে যাত্রী উঠে যাবে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর