বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

শিল্পের আলোয় রঙিন তিন গ্যালারি

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

শিল্পের আলোয় রঙিন তিন গ্যালারি

শিল্পের আলোয় রঙিন রাজধানীর আর্ট গ্যালারিগুলো। আলোকচিত্র, ছাপচিত্র, ভাস্কর্য, প্রাচ্যকলা, মৃৎশিল্প, কারুশিল্প, গ্রাফিক ডিজাইন, স্থাপনাশিল্প, নিউ মিডিয়া আর্ট ও পারফরমেন্স আর্টসহ নানা শিল্পকর্মের সমাহারে বর্ণাঢ্য এখন শিল্পের আঙিনা। একযোগে রাজধানীর তিনটি পয়েন্টে (শিল্পকলা একাডেমি, মোহাম্মদপুরের কলাকেন্দ্র ও নর্থসাউথ বিশ্বাবিদ্যালয়) চলছে তিনটি প্রদর্শনী। এর মধ্যে শিল্পকলা একাডেমির চারুকলা বিভাগের ব্যবস্থাপনায় চিত্রশালা প্লাজার গ্যালারিতে চলছে ‘২৪তম জাতীয় চারুকলা প্রদর্শনী’। ২৪তম জাতীয় চারুকলা প্রদর্শনী ২০২১-এর নীতিমালা অনুযায়ী ২১ বছরের ঊর্ধ্বে ৭৮৬ জন শিল্পীর সহস্রাধিক শিল্পকর্মের মধ্যে বাছাই করা ৩২৩ জন শিল্পীর ৩৪৭টি শিল্পকর্ম দিয়ে সাজানো হয়েছে এ প্রদর্শনী। এতে চিত্রকলা রয়েছে ১৫৭টি, ছাপচিত্র ৫৩টি, আলোকচিত্র ১৭টি, ভাস্কর্য ৪৭টি, প্রাচ্যকলা ১০টি, মৃৎ?শিল্প সাতটি, কারুশিল্প ২০টি, গ্রাফিক্স ডিজাইন পাঁচটি, স্থাপনাশিল্প ১৮টি, নিউ মিডিয়া আর্ট সাতটি ও পারফরমেন্স আর্ট ছয়টি। মোহাম্মদপুরের কলাকেন্দ্র আর্ট গ্যালারিতে চলছে স্প্যানিশ সমকালীন ছাপচিত্র নিয়ে আটজন শিল্পীর প্রদর্শনী। দুটি প্রদর্শনীই শেষ হবে ২৪ সেপ্টেম্বর। অন্যদিকে রোহিঙ্গাদের জীবনযাপন নিয়ে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে সপ্তাহব্যাপী প্রদর্শনী। যৌথভাবে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে সেন্টার ফর পিস স্টাডিজ, এসআইপিজি, নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব পলিসি অ্যান্ড গভর্নেন্স এসআইপিজি, নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি এবং ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন বাংলাদেশ। রোহিঙ্গাদের যাপিত জীবন, তাদের অবর্ণনীয় দুর্ভোগ, অসহায়ত্ব ইত্যাদি বিষয় উঠে এসেছে প্রদর্শনীর শিল্পকর্মে। ২৫ সেপ্টেম্বর শেষ হবে সাত দিনের এ প্রদর্শনী।  প্রতিদিনই গ্যালারিগুলোতে ভিড় করছেন শিল্পানুরাগী দর্শকরা। নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই শিল্পকর্মের সৌন্দর্য উপভোগ করছেন শিল্পের সমঝদাররা। এদের মধ্যে কেউ এসেছেন সপরিবারে আবার কেউ ব্যক্তিগতভাবে। কেউ শিল্পকর্মের পাশে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলে স্মৃতিময় করে রাখছেন। কেউ খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে পর্যবেক্ষণ করছেন শিল্পকর্মগুলো। গতকাল রাজধানীর মগবাজার থেকে শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালার গ্যালারিতে মেয়ে সুরাইয়া জান্নাত সৃষ্টিকে নিয়ে শিল্পকর্ম দেখতে আসেন সাজু আহমেদ।

২৪তম জাতীয় চারুকলা প্রদর্শনী ঘুরে দেখে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, প্রদর্শনীটি তিনি কয়েকদিন আগেই দেখেছেন। একমাত্র মেয়ের আবদারে আবারও শিল্পের আঙিনায় আসা। খুদে শিল্পানুরাগী সুরাইয়া জান্নাত সৃষ্টি বলেন, প্রদর্শনী দেখে খুবই ভালো লেগেছে। অনেকগুলো সেলফি তুলেছি। আমিও অবসরে ছবি আঁকি। এ সময় খুদে শিল্পানুরাগী সৃষ্টির ঠোঁটের কোনে ছিল আনন্দের হাসি।

সর্বশেষ খবর