শিরোনাম
মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২৩ ০০:০০ টা

স্বতন্ত্র প্রার্থী জামাল হোসেনের পক্ষে একাট্টা সালথার ভোটাররা

ফরিদপুর-২ আসন

ফরিদপুর প্রতিনিধি

স্বতন্ত্র প্রার্থী জামাল হোসেনের পক্ষে একাট্টা সালথার ভোটাররা

ফরিদপুর-২ (নগরকান্দা-সালথা) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট জামাল হোসেন মিয়ার পক্ষে একাট্টা হয়েছেন সালথা উপজেলার বেশির ভাগ ভোটার। আসন্ন নির্বাচনে জামাল হোসেনকে বিজয়ী করতে কাজ করছেন তারা। নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই সালথার বেশির ভাগ বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানরা জামাল হোসেন মিয়াকে সমর্থন দিয়ে তার সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন। এরই অংশ হিসেবে গতকাল বিকালে সালথা উপজেলার আটঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম খান সোহাগ স্বতন্ত্র প্রার্থী জামাল হোসেন মিয়ার সঙ্গে যোগ দেন। ফলে সালথা উপজেলায় জামাল হোসেনের পক্ষে ব্যাপক গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এর আগে জামাল হোসেন মিয়ার সঙ্গে যোগ দেন সালথা উপজেলার সাবেক দুই চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন ও ওহিদ মাতুব্বর। তাছাড়া স্থানীয় আওয়ামী লীগের বেশির ভাগ নেতারাই রয়েছেন জামাল হোসেন মিয়ার পক্ষে।

আটঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম খান সোহাগের যোগদান উপলক্ষে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট জামাল হোসেন মিয়া। জামাল হোসেন মিয়া বলেন, ফরিদপুর-২ আসন ছিল একটি চক্রের কাছে জিম্মি। যারা এলাকায় কোনো উন্নয়ন করেনি। তারা শুধু লুটপাট করেছে। ফলে আওয়ামী লীগ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বদনাম হয়েছে। আমাদের উচিত এবার সেই বদনাম ঘোচানোর। যারা এলাকার মানুষের দরদ  বোঝে, যারা এলাকার উন্নয়নে কাজ করবে তাকে ভোট দিতে হবে। এদিকে নির্বাচনী প্রচারণায় গতকাল সারা দিন ব্যস্ত সময় পার করেন জামাল হোসেন মিয়া। তিনি নগরকান্দা ও সালথা উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ ও উঠান বৈঠক করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর