শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ মার্চ, ২০২০ ২১:১৪

করোনায় মৃত্যুশয্যাদের পাশে নেই পরিবার, হৃদয়বিদারক বর্ণনা চিকিৎসকের

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় মৃত্যুশয্যাদের পাশে নেই পরিবার, হৃদয়বিদারক বর্ণনা চিকিৎসকের
ড. কামিনী দ্যুবে

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এ ভাইরাস ইতোমধ্যেই বিশ্বের অন্তত ১৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। এ পর্যন্ত বিশ্বে ৬ লাখ ২০ হাজার ৯৩৮ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ৬৫৩ জন। আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় ১ লাখ ৩৭ হাজার ৩৬৩ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের প্রায় অর্ধেকই নিউ ইয়র্কে। অঙ্গরাজ্যটি প্রায় ৪০ হাজার মানুষের শরীরে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ধরা পড়েছে।

এদিকে, চীনকে ছাড়িয়ে করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫ হাজার ১৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৭১৭ জনের। আক্রান্তদের মধ্যে ২ হাজার ৪৬৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এছাড়াও আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ২ হাজার ৫৩৭। 

এদিকে, আক্রান্তদের অনেকেই নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন। ফলে তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাতের কোনো সুযোগ নেই। অনেকে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে ফোনে কান্নাকাটি করছেন। কেউ আবার মৃত্যুর সময় কাউকেই পাশে পাচ্ছেন না।

এ বিষয়ে নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি ল্যাংগন মেডিকেল সেন্টার অ্যান্ড বেলভ্যুর চিকিৎসক ড. কামিনী দ্যুবে আইসিইউতে থাকা করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার হৃদয়বিদারক বর্ণনা দিয়েছেন।

তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত রোগীরা খুব কঠিন সময় পার করছেন। তারা বেঁচে থাকার লড়াই করছেন প্রতি মুুহূর্তে। কিন্তু প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে পরিবারের কারোর সঙ্গে তাদেরকে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না।

ড. দ্যুবে বলেন, প্রায়ই এমন দেখতে পাচ্ছি যে, একজন করোনা আক্রান্ত রোগী মৃত্যুশয্যায়, তিনি মারা যাচ্ছেন কিন্তু তার পাশে কেউ নেই। যাদেরকে আইসিইউতে রাখা হচ্ছে, তাদের স্বজনদের ভোগান্তি দেখে খুবই কষ্ট হচ্ছে। আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রোগীরা তাদের পরিবারের লোকজনের সঙ্গে ফোনে কান্নাকাটি করছেন। তাদের চোখের পানি দেখা খুবই বেদনাদায়ক। আবার এমন অনেকেই আছেন যারা মৃত্যুর সময় পরিবারের কাউকেই পাশে পাচ্ছেন না। এটা খুবই মর্মান্তিক।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য