শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ মার্চ, ২০২০ ২১:২২

পাহাড়ে সুবিধাবঞ্চিতদের দেওয়া হচ্ছে ত্রাণ সহায়তা

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি :

পাহাড়ে সুবিধাবঞ্চিতদের দেওয়া হচ্ছে ত্রাণ সহায়তা

পাহাড়ের সুবিধাবঞ্চিত মানুষগুলোকে সহায়তা দিয়েছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন। রবিবার দুপুরে শহরের পৌরসভা এলাকায় দারিদ্র জনগোষ্ঠীদের মধ্যে ত্রাণ সহায়তা বিতরণ করেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ। এসময় রাঙামাটি পৌর প্যানেল মেয়ল মো. জামাল উদ্দীন ও  সুশীল সমাজের প্রতিনিধি মো. জাবেদ উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে করোনা আতঙ্কের মধ্যে পুরো রাঙামটি জেলা স্থবির হয়ে গেছে। অঘোষিতভাবে চলছে লকডাউন। নিত্যপণ্য সামগ্রী ছাড়া বন্ধ রয়েছে সব ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান। তাই এসময় যে সব নিম্ন আয়ের মানুষ  ঘরে অবস্থান করছে তাদের সহায়তা দিতে মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে জেলা প্রশাসনের বিশেষ দল। এছাড়া স্থানীয়দের করোনাভাইরাস সংক্রমণ সর্ম্পকে সচেতন করতে পাড়া-মহল্লায় মাইকিং করে সচেতনতামূলক কাজ করছে সেনাবাহিনী। একান্ত প্রয়োজন ছাড়া মানুষ যাতে বাইরে বের হয়ে আড্ডা দিতে না পারে সে বিষয়েও বিশেষ নজরদারি রাখা হচ্ছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।
 
এ ব্যাপারে একেএম মামুনুর রশিদ জানান,ক্রান্তিকালে মানুষ যাতে ঘরে বসে ভালোভাবে চলতে পারে তার জন্য প্রশাসনের এ ত্রাণ বিতরণের উদ্যোগ। কারণ করোনা সংক্রমণ রোধ করতে হলে বাধ্য হয়ে মানুষকে নিজ ঘরে অবস্থান করতে হবে। সচেতন থাকতে হবে। বাইরে বের হলে মানুষ করোনা আক্রান্ত হতে পারে। তাই সব কিছু বন্ধ ঘোষাণা করা হয়েছে। তবে যারা দারিদ্রজনগোষ্ঠী রয়েছে তাদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ১০০ মেট্রিক টন চাল ও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ এসেছে। আমরা সেগুলো সবার মাঝে পৌঁছে দিচ্ছি। বিশেষ করে দিনমজুর ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। এটা শুধু রাঙামাটি শহরে না রাঙামাটির ১০টি উপজেলার দারিদ্র জনগোষ্ঠীদের মধ্যে এ সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হবে। অন্যদিকে রাঙামাটি বাঘাইছড়ি উপজেলায় করোনা সংক্রমণ এড়াতে ১০ ঘর লকডাউন করা হয়েছে। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য