শিরোনাম
প্রকাশ : ২ এপ্রিল, ২০২০ ২২:০৭

এবার অ্যামাজনের আদিবাসী তরুণীর শরীরে করোনা, বড় বিপদের আশঙ্কা!

অনলাইন ডেস্ক

এবার অ্যামাজনের আদিবাসী তরুণীর শরীরে করোনা, বড় বিপদের আশঙ্কা!

এবার অ্যামাজনের গভীর অরণ্যে বসবাসকারী আদিবাসী তরুণীর দেহে মিলল করোনাভাইরাসের জীবাণু। ব্রাজিলজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। প্রথমবার ব্রাজিলে কোনো আদিবাসীর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। 

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, অ্যামাজনের গভীরে বসবাসকারী কোকামা উপজাতির ২০ বছরের একটি তরুণী করোনা পজিটিভ হয়েছে। 

ব্রাজিল-কলম্বিয়া সীমান্তের কাছাকাছি স্যান্টো আন্তোনিও দো ইকা জেলায় একটি আদিবাসী গ্রাম রয়েছে। ওই গ্রামেরই বাসিন্দা তরুণীটি। ওই গ্রামে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ বাস করে।  

উদ্বেগের এখানেই শেষ নয়। ওই গ্রামের আরও চারজনের দেহে করোনার উপস্থিতি মিলেছে। তারা অবশ্য উপজাতির সদস্য নন। আক্রান্তদের মধ্যে একজন ডাক্তার রয়েছেন। 

মনে করা হচ্ছে ওই গ্রামে মানুষের সেবা করতে যাওয়া ওই ডাক্তারের শরীর থেকেই আক্রান্ত হয়েছেন গ্রামের চারজন। ওই উপজাতির মধ্যে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়লে বড়সড় বিপদের শঙ্কা রয়েছে বলে মনে করছে ব্রাজিলের প্রশাসন।  

ব্রাজিলের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ও তরুণী আদিবাসী স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে কাজ করেন। ফলে সেই ডাক্তারের শরীর থেকেই তিনিও সংক্রমিত হয়েছেন বলে মনে করছে ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। যদিও গত কয়েকদিন ধরে ওই ডাক্তারের সংস্পর্শে ছিলেন ১৫ জন স্বাস্থ্যকর্মী ও ১২ জন রোগী। তাদের সবার শরীরে অবশ্য করোনার উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি। 

জানা গিয়েছে, ওই ডাক্তার কিছুদিন আগেই দক্ষিণ ব্রাজিলে দেশের অন্যতম বড় আদিবাসী গোষ্ঠী তিকুনার সঙ্গে কাজ করে ফিরেছিলেন। ফলে তিনুকা উপজাতির মধ্যেও কেউ কেউ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য