শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ এপ্রিল, ২০২০ ১৬:১৯
আপডেট : ৬ এপ্রিল, ২০২০ ১৬:৩৯

করোনা পরিস্থিতিতে ব্রিটেনে নিষিদ্ধ হল সূর্যস্নান

যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি:

করোনা পরিস্থিতিতে ব্রিটেনে নিষিদ্ধ হল সূর্যস্নান
প্রতীকী ছবি

করোনা মহামারীর কারণে সূর্যস্নান ও আউটডোর এক্সারসাইজ নিষিদ্ধ করেছে ব্রিটেন। করোনা বিস্তার রোধে সরকার এই দুইটি বিষয় নিষিদ্ধ করেছে রবিবার। লকডাউনের দ্বিতীয় সপ্তাহে রৌদ্রোজ্জ্বল দিন শুরু হয়েছে দেশে। বিগত ছয় মাসের মধ্যে এটাই সবচেয়ে উষ্ণতম সপ্তাহ বলে জানায় আবহাওয়া দপ্তর। 

দীর্ঘ শীতের পর এমন রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে লোকজন সূর্যস্নান ও আউটডোর এক্সারসাইজে বের হচ্ছেন। যা লকডাউনের মধ্যেও করোনাভাইরাস বিস্তারের কারণ হতে পারে বলে মনে করেন চিকিৎসকরা। তারা রোদঝলমলে পরিবেশ দেখে ঘরের বাইরে না বেরুতে নাগরিকদের সতর্ক করেছিল। কিন্তু লোকজনের একাংশ সেটা মানছিল না।

শনিবার কেবিনেট মিনিস্টার মাইকেল গভ বলেন, কিছু প্রমাণ পাওয়া গেছে দেশের তরুণদের একাংশ সামাজিক দূরত্বে নির্দেশনা গুরুত্বের সাথে নিচ্ছেন না, মানছেন না। হয়তো তরুণরা মনে করছেন, তাদের সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কম। এমন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট হ্যানকক বলেছেন, লকডাউনে জনসমাগমের রোদ পোহানো নিয়ম বিরুদ্ধ। এতে মানুষের মধ্যে করোনার বিস্তার ঘটতে পারে। গুরুত্বপূর্ণ জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে জনসমাগমে সূর্যস্নান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। নিয়ম ভঙ্গকারীদের সতর্ক করে বলেন, আপনি অন্যের জীবনকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলছেন এবং নিজেকে ক্ষতির পথে নিয়ে যাচ্ছেন।

ম্যাট হ্যানকক বলেন, আমরা বলেছি যে বাইরে অনুশীলনে যাওয়া ঠিক আছে। কারণ কিছুটা অনুশীলন শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এবং উপকারি। তবে লোকজন সামাজিক দূরত্বের নিয়মগুলো লঙ্ঘন করলে বাইরের অনুশীলন নিষিদ্ধ হতে পারে। এই মুহূর্তে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ নির্দেশনা মানছেন। তাই কারো সেটা নিয়ম ভঙ্গ করা উচিত নয়। তাহলে আমাদের আরো পদক্ষেপ নিতে হতে পারে।

স্টে-অ্যাট-হোম নির্দেশিকা লঙ্ঘন করে শনিবার লন্ডনের ল্যামবেথ এলাকার ব্রুকওয়েল পার্কে তিন হাজার লোক সূর্যস্নান করেছে। যাদের মধ্যে দলবল নিয়ে সূর্যস্নান করেছেন অনেকেই। তারই প্রেক্ষিতে পার্কটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। একই রকম ক্যামডেনের প্রিমরোস হিলে একই রকম দৃশ্য দেখা গেছে। সেখানে শখানেক লোককে পিকনিক করতে ও বন্ধুদের সাথে সাক্ষাত করতে দেখে পুলিশ। সাউথ কোস্টে নিয়মভঙ্গ করে সমুদ্রসৈকতে বারবিকিউ পার্টি করায় এখন আদালতে বিচারের মুখোমুখি হয়েছেন দুইজন। আর লকডাউন নির্দেশনা মেনে এমন রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে সমুদ্রসৈকতে না যাওয়া লোকজনকে ধন্যবাদ জানিয়েছে সাসেক্স পুলিশ। 

মেট অফিসের আবহাওয়াবিদ স্টিভেন কেটস বলেছেন, রবিবার একটি সুন্দর বসন্তের দিন। যুক্তরাজ্যের বেশিরভাগ অংশে দৃশ্যমান ছিল নীল আকাশ এবং রৌদ্র। গত বছরের ১লা অক্টোবরের পর আজই দেশের কিছু অংশে তাপমাত্রা ২০-২১ ডিগ্রিতে পৌঁছেছে।
 
বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য