শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ মে, ২০২১ ০৮:৪৪
প্রিন্ট করুন printer

বিশ্বে প্রথম ১২ বছরের বেশি বয়সী শিশুদের করোনা টিকা দেবে কানাডা

অনলাইন ডেস্ক


বিশ্বে প্রথম ১২ বছরের বেশি বয়সী শিশুদের করোনা টিকা দেবে কানাডা
প্রতীকী ছবি
Google News

করোনার থাবা গোটা দুনিয়াতে। আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিদিন লাখ লাখ মানুষ। মারা যাচ্ছে হাজার হাজার। চিকিৎসকরা বলছেন, মোকাবিলার অন্যতম উপায় হল টিকাকরণ। কিন্তু তা ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্যই প্রযোজ্য। তাহলে শিশুরা কী করবে?‌ তাদের ঝুঁকি কিন্তু থেকেই যাচ্ছে। 

এবার এই অবস্থারই অবসান হচ্ছে বিশ্বের একটি দেশে। ১২ বছরের বেশি বয়সি শিশুদের টিকাকরণে অনুমোদন দিল কানাডা। গত বুধবার (৫ মে) ফাইজার এবং বায়োএনটেক-এর টিকাকে এই ছাড়পত্র দিল জাস্টিন ত্রুডোর সরকার। কানাডার মুখ্য স্বাস্থ্য উপদেষ্টা সুপ্রিয়া শর্মা জানিয়েছেন, কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে কানাডার লড়াইয়ে এই সিদ্ধান্ত হল ‘‌মাইলফলক’‌। 

আশা করা হচ্ছে, আগামী সপ্তাহে আমেরিকাও বাচ্চাদের টিকাকরণে অনুমোদন দেবে। মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এই সিদ্ধান্ত নেবে। আগামী শিক্ষাবর্ষের আগে আমেরিকায় ১২ বছরের বেশি বয়সী কিশোরদের ফাইজারের টিকা দিতে চায় তারা। ফাইজার সংস্থা আগেই জানিয়েছিল, যে তাদের টিকা ১৬ বছর বয়সিদের ক্ষেত্রেও নিরাপদ। ১৬ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের অনায়াসে দেওয়া চলে এই টিকা। এক মাস আগে তারা জানায়, ১২ বছরের ওপর সব বয়সী বাচ্চাদেরই দেওয়া যাবে টিকাটি।

মার্চের শেষে আমেরিকায় ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সি ২,২৬০ জন স্বেচ্ছাসেবীর ওপর টিকার ট্রায়াল চালিয়েছিল ফাইজার। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছিল, টিকা নেওয়া স্বেচ্ছাসেবীদের মধ্যে কেউই পরবর্তীকালে করোনায় আক্রান্ত হয়নি। ১৮ জনকে ডামি শট দেওয়া হয়েছিল। তাদের সঙ্গেই তুলনা করে দেখা হয়েছিল। তখনই এই টিকার ১০০ শতাংশ কার্যকারিতা প্রমাণিত হয়েছিল। তার পর থেকেই দেশের শিশুদের এই টিকাকরণের আওতায় আনার কথা ভাবতে শুরু করে কানাডা সরকার। খুব দ্রুতই এবার টিকা পাবে সেদেশের শিশুরাও। 


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত