৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৬:৩৯

শেষরক্ষা হলো না, প্রথমবার করোনা শনাক্ত কুক দ্বীপে

অনলাইন ডেস্ক

শেষরক্ষা হলো না, প্রথমবার করোনা শনাক্ত কুক দ্বীপে

কুক দ্বীপ

১৭ হাজার জনসংখ্যাবিশিষ্ট দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের দেশ কুক দ্বীপ বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি টিকাকরণ হয়েছে। সেখানকার ৯৬ শতাংশ নাগরিকের দুটি টিকাই নেওয়া শেষ। যদিও মহামারির গত দুই বছরে করোনা সংক্রমণ ঘটেনি এই দ্বীপে। তবে শেষ রক্ষা হলো না। এই প্রথম  বৃহস্পতিবার করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে কুক দ্বীপে।

কুক দ্বীপের প্রধানমন্ত্রী মার্ক ব্রাউন এক বিবৃতিতে বলেন, ১০ বছর বয়সী এক বালক কোভিডে আক্রান্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবারই কুক দ্বীপে এসেছে সে। বিমানবন্দরে পরীক্ষার সময় করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। তারপরই তাকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।’

মনে করা হচ্ছে, ছেলেটি নিউজিল্যান্ড থেকে কুক দ্বীপে ঢুকেছে।

২০২০-তে কোভিড সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পরই দ্রুত পদক্ষেপ নেয় দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের এই দেশ। পর্যটকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ফলে কোভিড থাবা বসাতে পারেনি। কিন্তু সম্প্রতি সীমান্ত খুলে দেওয়ায় এবং পর্যটকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতেই সংক্রমণ ধরা পড়ল।

প্রধানমন্ত্রী ব্রাউন বলেন, ‌‘যেদিন থেকে সীমান্ত খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সেদিন থেকেই সংক্রমণ ঠেকাতে পুরোদস্তুর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। সীমান্তেই যাতে সংক্রমিত ব্যক্তিদের আটকে দেওয়া যায়, সে ব্যবস্থাও করা হয়।’  

সূত্র : এবিসি ডটনেট, ফ্রান্স২৪
 
বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর