১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:৪৬

কিশোরগঞ্জে করোনা আক্রান্তের সর্বশেষ তথ্য

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জে করোনা আক্রান্তের সর্বশেষ তথ্য

প্রতীকী ছবি

কিশোরগঞ্জে গত ২৪ ঘন্টায় (রবিবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত) ৩৩৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০ জন, হোসেনপুরে ২, কুলিয়ারচরে ২ ও ভৈরবে ২ জন আছেন। তবে এ সময়ে কারও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। জেলায় এ পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ৭৫ জন।

সিভিল সার্জন ডা. সাইফুল ইসলাম রবিবার রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন। সিভিল সার্জন আরও জানান, ১৫ ও ১৬ জানুয়ারি (আংশিক) কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাব হতে (প্রি আইসোলেশনে ভর্তিকৃত জরুরি রোগীসহ) ৬২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। 

এদিকে ১৫ জানুয়ারি বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরটি-পিসিআর ল্যাবে ২৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২ জনের এবং অন্য জেলার ৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ ছাড়া কিশোরগঞ্জ বক্ষব্যাধি ক্লিনিকে ২ জন, করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৪ জন ও কুলিয়ারচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০ জনসহ মোট ২৬ জনের রেপিড এন্টিজেন ও জিন এক্সপার্ট টেস্টে ২ জনের করোনা উপসর্গ পাওয়া গেছে।

এদিকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ১ জন, সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১ জন এবং আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন ২ জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন ২১৫ জন।

সিভিল সার্জন আরও জানান, এ পর্যন্ত জেলায় মোট ১১ হাজার ৭৯১ জন সুস্থ হয়েছেন। বর্তমানে জেলায় সর্বেমোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬৯ জন। এর মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩৫ জন, হোসেনপুরে ৪, করিমগঞ্জে ১, পাকু্ন্দিয়ায় ২, কটিয়াদীতে ১, কুলিয়ারচরে ৭, ভৈরবে ১০, নিকলীতে ১, বাজিতপুরে ৬ ও অষ্টগ্রামে ২ জন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে/আইসোলেশনে রয়েছেন ৫৪ জন। আর হাসপাতাল আইসোলেশনে ৬ জন রোগী রয়েছেন।
 
গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৮ হাজার ৫৮২ জন, দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৭৩ জন এবং বোস্টার ডোজ নিয়েছেন ১ হাজার ১৫২ জন। গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন মোট ২ লাখ ৪৮ হাজার ৩২১ জন, দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিয়েছেন ৭৭ হাজার ১০৯ জন এবং বোস্টার ডোজ নিয়েছেন ৫ হাজার ২৯৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সিনোফার্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ১০ জন ও দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ১ হাজার ৮৩২ জন। গত ১৯ জুন থেকে এ পর্যন্ত সিনোফার্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ১০ লাখ ৮৮ হাজার ৩৮৬ জন এবং মোট দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৯ লাখ ৫১ হাজার ৩৮৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ফাইজার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৫ হাজার ৪২৫ জন, দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৬৫৭ জন ও বোস্টার ডোজ নিয়েছেন ৩০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৪ হাজার ৭৯১ জন। এ পর্যন্ত মোট রেজিস্ট্রেশন করেছেন ১৪ লাখ ১৪ হাজার ৯৫১ জন। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


 

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর