২৭ জানুয়ারি, ২০২২ ১৪:৪৪

সংক্রমণ বাড়লেও যে কারণে লকডাউন তুলে দিল অস্ট্রিয়া

অনলাইন ডেস্ক

সংক্রমণ বাড়লেও যে কারণে লকডাউন তুলে দিল অস্ট্রিয়া

সংগৃহীত ছবি

মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়লেও লকডাউন তুলে দিলো অস্ট্রিয়া। দেশটির চ্যান্সেলর কার্ল নেহ্যামার জানিয়েছেন, ‘বিশেষজ্ঞরা তার মন্ত্রিসভাকে জানিয়েছেন- দীর্ঘদিন লকডাউন করে রেখে বিশেষ লাভ হবে না। সে কারণেই টিকা যারা নেননি তাদের জন্য ঘোষিত লকডাউনও এবার তুলে দেওয়া হলো।’ 

তবে লকডাউন তুলে নিলেও অস্ট্রিয়াতে টিকাহীন ব্যক্তিরা রেস্তোরাঁয় যেতে পারবেন না। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান ছাড়া অন্য জায়গায় প্রবেশ করতে পারবেন না। কিন্তু তারা বাড়ি থেকে বের হতে পারবেন। চ্যান্সেলর আরও জানিয়েছেন, এই সিদ্ধান্ত যখন নেওয়া হচ্ছে, দেশে করোনার সংক্রমণ তখন বাড়ছে। কিন্তু সংক্রমণ বাড়লেও তা ভয়াবহ চেহারা নিচ্ছে না। হাসপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত শয্যা ফাঁকা আছে। আইসিইউ-তেও যথেষ্ট জায়গা আছে। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে, নতুন ঢেউয়ে মানুষ সংক্রমিত হলেও খুব বেশি অসুস্থ হচ্ছেন না। সে কারণেই লকডাউন পুরোপুরি তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক ঢেউয়ে অস্ট্রিয়াই প্রথম কড়া লকডাউনের ঘোষণা করেছিল। এখন লকডাউন তুলে নিলেও অস্ট্রিয়াই প্রথম দেশ, যারা করোনার টিকা নেওয়া বাধ্যতামূলক বলে আইন পাশ করেছে। সাবালক সকল ব্যক্তিকে বাধ্যতামূলকভাবে করোনার টিকা নিতে হবে। এর বিরুদ্ধে দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। হাজার হাজার মানুষ সপ্তাহান্তে এর বিরুদ্ধে সমাবেশ করছেন। কিন্তু চ্যান্সেলর জানিয়ে দিয়েছেন, তারা নিজেদের সিদ্ধান্ত থেকে সরবেন না। 

সূত্র : ডয়চে ভেলে।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর