শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১১

কেরোসিন ঢেলে গৃহবধূর শরীরে আগুন, ১৬ ঘণ্টা পর মৃত্যু

বেতনের টাকা না দেওয়ার জের

শ্রীপুর প্রতিনিধি

কেরোসিন ঢেলে গৃহবধূর শরীরে আগুন, ১৬ ঘণ্টা পর মৃত্যু

গাজীপুরের শ্রীপুরে বেতনের টাকা না দেওয়ায় গৃহবধূর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ শিউলী আক্তার (৩৫) ১৬ ঘণ্টা চিকিৎসাধীন থাকার পর গতকাল বিকালে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে মারা গেছেন। শিউলী ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার শুক্কুর আলীর মেয়ে ও বরিশারলের বানারীপাড়ার আব্দুল মোতালেবের ছেলে শহীদুল ইসলামের (৪০) স্ত্রী। অগ্নিকা-ের সময় অভিযুক্ত স্বামী শহীদুল ইসলামও দগ্ধ হন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাকে আটক করা হয়েছে। নিহতের বাবা শুক্কুর আলী বলেন, ১৪ বছর আগে তার মেয়ের সঙ্গে শহীদুলের বিয়ে হয়। দুজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। এ সংসারে কোনো সন্তান নেই। বিয়ের আগে থেকেই শিউলী গাজীপুরে পোশাক কারখানায় চাকরি করত। শহীদুল পেশায় গাড়িচালক। সে তার প্রথম স্ত্রীকে নিয়ে গাজীপুর মহানগরের কোনাবাড়ী এলাকায় বসবাস করে। প্রতি মাসে কারখানা থেকে বেতন তোলার পরই শহীদুল শিউলীর কাছ থেকে প্রায় সব টাকা নিয়ে যেত। সোমবার রাতে একইভাবে বেতনের টাকা নিতে আসে সে। তখন টাকা দেওয়া নিয়ে দুজনের ঝগড়া হয়। রাত ১২টার দিকে শিউলী ঘুমিয়ে পড়লে শহীদুল বাড়ির অন্য ভাড়াটিয়াদের ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে শিউলীর শরীরে কোরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় শিউলী শহীদুলকে জড়িয়ে ধরে চিৎকার শুরু করেন। শব্দ শুনে বাড়ির মালিক আব্দুর রশীদ এসে ভাড়াটিয়াদের বাসার সিটকিনি খুলে দেন শিউলীকে উদ্ধার করেন।


আপনার মন্তব্য