শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:২৩

চিকিৎসকের ভুলে মৃত্যু এক লাখ টাকায় রফা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

চিকিৎসকের ভুলে মৃত্যু এক লাখ টাকায় রফা

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুল চিকিৎসায় পারুল নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে ১ লাখ ২০ হাজার টাকায় মীমাংসা করার অভিযোগ উঠেছে। শহরের ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে গত সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। পারুল (২৩) সদর উপজেলার বাশুদেবপুর গ্রামে রাজীব হোসেনের স্ত্রী। রাজীব জানান, তার স্ত্রী গর্ভবতী ছিলেন। সোমবার সন্ধ্যায় প্রসব যন্ত্রণা শুরু হলে তাকে ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত ৮টার দিকে ডাক্তার জাহাঙ্গীর আলম পারুলের অপারেশন করেন এবং একটি ছেলে সন্তান জন্ম হয়। অপারেশনের কিছুক্ষণ পর স্ত্রীর পেট ব্যথা বেড়ে যায় এবং যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকে। দায়িত্বরত স্টাফদের জানালে তারা কোনো সেবা দেননি। এমনকি ডাক্তার জাহাঙ্গীর আলমও রোগীর খোঁজখবর করেননি। রাত ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। রজিব বলেন, ‘ডাক্তার আমার স্ত্রীর ঠিকমত অপারেশন করেনি। প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় সে মারা যায়। এটি পুরোপুরি ভুল চিকিৎসা। আমি ডাক্তার ও ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।’ ডাক্তার জাহাঙ্গীর আলমের দাবি, অপারেশনে কোনো ভুল হয়নি। ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা. আবু মো. খয়রুল কবির জানান, এ ঘটনায় তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। ডা. জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সদর থানার ওসি জানান, অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখা হবে। জানা যায়, ঘটনার পর হাসপাতাল মালিক সমিতির নেতারা মৃতের পরিবার নিয়ে বসেন। সেখানে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপার চেষ্টা করা হয়।


আপনার মন্তব্য