শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ জুন, ২০২১ ০০:০৩

সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

Google News

বগুড়ার শেরপুরে দরপত্র ছাড়াই সরকারি বেশ কয়েকটি মূল্যবান মেহগনি গাছ কাটলেন সরকারি অফিসের কর্তাব্যক্তিরা। সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই কয়েকদিন ধরে এসব গাছের গোড়ায় করাত চালাচ্ছেন তারা। গতকাল  উপজেলার গাড়ীদহ ইউনিয়ন অফিস প্রাঙ্গণে সরেজমিন গিয়ে অন্তত ছয়টি মেহগনি গাছ কাটার নমুনা দেখা যায়।

তবে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের উপসহকারী (ভূমি) কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজার দাবি, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সবকিছুই জানেন। বিশেষ করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এসি ল্যান্ড স্যারের নির্দেশেই গাছগুলো কাটা হয়েছে। তাই কিছু বলার বা জানার থাকলে তার সঙ্গে কথা বলেন। এক্ষেত্রে কোনো মন্তব্য করতে অপারগতা প্রকাশ করেন ওই ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা।

ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের পাশেই উপজেলার রহমাননগর (কলতাপাড়া) এলাকায় গাড়ীদহ ইউনিয়ন (ভূমি) অফিসের অবস্থান। ইটের প্রাচীরবেষ্টিত সবুজ চত্বর। প্রায় দুই বিঘা জায়গাজুড়েই রয়েছে বেশকিছু পুরনো দামি দামি বনজ ও ফলদ গাছ। আর উত্তর-পশ্চিম কোণে অবস্থিত ভূমি অফিস। সামনেই স্তূপ করে রাখা হয়েছে কিছু কাটা মেহগনি গাছের গুঁড়ি। তার পাশেই কাটা মেহগনি গাছগুলোর গোড়া অবিকল রয়েছে। কোনোটির গোড়া মাটি খুঁড়ে তুলে ফেলা হলেও ছয়টি গাছের গোড়া ও শিকড় এখনো রয়েছে। তবে কেটে ফেলা গাছের ডাল-পালাগুলো দেখা যায়নি।

এই বিভাগের আরও খবর