বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা

সংক্ষিপ্ত

সংক্ষিপ্ত

মুমূর্ষু রোগীকে ফেলে গেল রাস্তায় হাসপাতালে নিল পুলিশ

মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ফরিদপুর পুলিশের কাছে একটি ফোন আসে। জানানো হয়, সদর উপজেলার ঈশান গোপালপুর ইউনিয়নের চক ফতেপুর গ্রামে রাস্তার পাশের বাঁশঝাড়ে মুমূর্ষু অবস্থায় এক ব্যক্তিকে ফেলে রাখা হয়েছে। ফোন পাওয়ার পরই সেখানে ছুটে যান কোতোয়ালি থানার ওসি এম এ জলিলসহ পুলিশের একটি দল। রাতেই সেই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রয়োজনীয় ওষুধ কিনে দেওয়া হয় পুলিশের পক্ষ থেকে। ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ওসি এম এ জলিল জানান, রাত দেড়টার দিকে ৯৯৯-এ একটি ফোন আসে কোতোয়ালি থানায়। ফোনে জানানো হয়, এক ব্যক্তিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে এনে বাঁশবাগানে ফেলে গেছে কয়েকজন ব্যক্তি। সেখানে গিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে পুলিশের তহবিল থেকে ওষুধ এবং কাপড় কিনে দেওয়া হয়। ওই ব্যক্তি জানান, তার নাম তোতা মিয়া। তবে কারা তাকে ফেলে গেছে তা জানা যায়নি।

-ফরিদপুর প্রতিনিধি

 

ভ্যান থেকে ফেলে দেওয়ায় মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

ভ্যান থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ায় সাত্তার শেখ (৭০) নামে এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। সোমবার গভীর রাতে তিনি মারা যান। তিনি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কাজুলিয়া উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল করিম শেখের ছেলে। এদিকে অভিযুক্ত রাজ্জাক শেখ পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী ধরে পুলিশে দিয়েছেন। এলাকাবাসী জানান, ২৩ জুলাই জুমার নামাজের পর সাত্তার শেখ ভ্যানে চড়ে জামাইবাড়ি যাচ্ছিলেন। একই গ্রামের রাজ্জাক শেখের বাড়ির সামনে পৌঁছলে পূর্বশত্রুতার জেরে রাজ্জাক তাকে ভ্যান থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন। লোকজন তাকে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ২৬ জুলাই হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাত্তার শেখকে মৃত ঘোষণা করেন। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

-গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

 

পুলিশ দেখে পালাতে গিয়ে নদীতে ঝাঁপ 

গাজীপুরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে পালাতে গিয়ে এক তরুণ নিখোঁজ হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে মাদক সেবনের অভিযোগে দুজনকে আটক করেছে। গতকাল রাত পর্যন্ত নিখোঁজ ওই তরুণের সন্ধান মিলেনি। নিখোঁজ তরুণের নাম-রাব্বি হাসান। কালীগঞ্জ থানার এসআই এ কে এম মিজানুল হক জানান, কালীগঞ্জ থানা পুলিশের এস আই শহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম মঙ্গলবার রাতে তুমুলিয়া ইউনিয়নের বঙ্গবন্ধু বাজার ও আশেপাশের এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে যায়। পুলিশ দেখে কার্গোতে থাকা ১৫/১৭ জন যুবক ভয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় রাব্বিসহ ৩/৪ জন নদীতে ঝাঁপ  দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাদক সেবনের দায়ে দুজনকে আটক করলেও অন্যরা পালিয়ে যায়। আটককৃতরা হলো- সাজেদ মিয়া ও সাইদুল ইসলাম শান্ত। পুলিশ থানায় আসার পর জানতে পায় যে, ঘটনার সময় নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ হয় রাব্বি। নিখোঁজ রাব্বির সন্ধানে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল নদীতে তল্লাশি চালালেও গতকাল রাত পর্যন্ত তার খোঁজ পাওয়া যায়নি। -গাজীপুর প্রতিনিধি 

 

পানিতে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ডোবায় গোসল করতে নেমে ডুবে আল রাহাত রিমন (১৬) নামে এক স্কুলছাত্র মারা গেছে। গতকাল শ্রীপুরের সিংড়াতলীতে এ ঘটনা ঘটে। রিমন শ্রীপুর পৌরসভার মাধখলা তুলা উন্নয়ন ও বীজ বর্ধন খামারের ল্যাব সহকারী রতন মিয়ার একমাত্র ছেলে। পরিবারের বরাত দিয়ে গাজীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুর আল রশিদ জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয় সুইমিংপুলে গোসলের কথা বলে প্রতিবেশী বন্ধুদের সঙ্গে বের হয় রিমন। তুলা খামারের পাশে সিংড়াতলীর একটি ডোবায় তারা ছয় সহপাঠী গোসল করতে নামে। -শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

এই রকম আরও টপিক