শিরোনাম
মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল, ২০২৩ ০০:০০ টা

সমস্যায় জর্জরিত বাবুরহাট কাপড়ের হাট

সঞ্জিত সাহা, নরসিংদী

সমস্যায় জর্জরিত বাবুরহাট কাপড়ের হাট

দেশের অন্যতম পাইকারি কাপড়ের হাট নরসিংদীর শেখেরচর-বাবুরহাট। সরু রাস্তাঘাট, অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, জরাজীর্ণ ব্রিজ ও ব্রিজের একাংশ ভেঙে পড়ায় যাতায়াত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা সৃষ্টিসহ নানা ভোগান্তিতে পড়তে হয় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত পাইকার ও হাটের ব্যবসায়ীদের। বিষয়গুলো সমাধানে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলেও আশু সমাধানে নেওয়া হয়নি তেমন কোনো উদ্যোগ। ফলে বছরের পর বছর সরু রাস্তাঘাট দিয়েই চলছে হাটের কার্যক্রম।  নরসিংদী সদর উপজেলার শীলমান্দি ইউনিয়নে অবস্থিত প্রাচ্যের ম্যানচেস্টার খ্যাত শেখেরচর দেশের সর্ববৃহৎ পাইকারি কাপড়ের হাট এই বাবুরহাট। এখানে দেশের বিভিন্ন জেলার কাপড় ব্যবসায়ীদের যাতায়াত। কমবেশি প্রায় ৫ হাজার দোকান রয়েছে এ হাটে। ৭৯ বছর ধরে চলা এ হাট প্রথমে ছিল এক দিনের। বর্তমানে সপ্তাহে বৃহস্পতি থেকে শনিবার তিন দিন বসে। দেশের নিত্যব্যবহার্য কাপড়ের চাহিদার প্রায় ৭০ শতাংশ পূরণ করছে এ হাট। তাঁতসমৃদ্ধ নরসিংদী ও এর আশপাশের বিভিন্ন জেলার উৎপাদিত কাপড় ও কাপড়জাত পণ্য বিক্রি হয় এ হাটে। সরু রাস্তাঘাট, অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও পয়নিষ্কাশনের ভালো ব্যবস্থা না থাকায় দূর-দূরান্ত থেকে আসা পাইকারদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়। তার ওপর স্বল্প বৃষ্টি হলেই বাজারে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। ফলে পাইকার ও ব্যবসায়ীদের নির্বিঘ্নেœ চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়। এরই মধ্যে বাজারে ঢোকার জন্য ব্রক্ষ্মপুত্র নদের ওপর নির্মিত যে দুটি বেইলি ব্রিজ রয়েছে, সেই পথের একটি বেইলি ব্রিজ মাঝখানে ভেঙে গেছে। ফলে যান চলাচলসহ হাটে আসা ব্যবসায়ীদের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। ব্রিজ ভাঙায় চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন এখানকার ব্যবসায়ীরা। শেখেরচর বাজার (বাবুরহাট) বণিক সমিতির সভাপতি ও শীলমান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ব্রক্ষ্মপুত্র নদী পাড়ি দিয়ে বাজারে ঢোকার জন্য যে দুটি ব্রিজ রয়েছে। সেগুলো জরাজীর্ণ। এর মধ্যে একটি ভেঙে পড়েছে। এখন ব্রিজ ধসে পড়লে নদী পাড় হওয়া কঠিন। নরসিংদী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বিজয় ইন্দ্র শঙ্কর চক্রবর্তী জানিয়েছেন, জরাজীর্ণ যেসব ছোট ব্রিজ আছে সেগুলো অপসারণ করে বড় ব্রিজে রূপান্তর করার নির্দেশনা রয়েছে।

সর্বশেষ খবর