শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২১:১৫
প্রিন্ট করুন printer

আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে পোশাক শ্রমিক নিহত

সাভার প্রতিনিধি

আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে পোশাক শ্রমিক নিহত
প্রতীকী ছবি

সাভারের আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে রাসেল খান (২৭) নামে এক পোশাক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাতের ঘটনায় শনিবার সকালে সাভার এনাম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

শুক্রবার রাত ১ টার দিকে আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকার ভূঁইয়াপাড়া মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাসেল মাদরীপুর এলাকার কুতুবপুর গ্রামের ফজুলল খানের ছেলে। আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

রাসেল ভূঁইয়াপাড়া এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থেকে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, ভূঁইয়াপাড়া এলাকার স্থানীয় সড়কে কয়েকদিন আগে রাসেল খানের এক বন্ধুর মোবাইল ছিনতাই করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। 

শুক্রবার রাতে আবারও দুই যুবককে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। পরে তারা ওই দুই যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরুর এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা দেখা দেয়। এসময় দুই যুবক অস্ত্র বের করে অতকির্তভাবে গুলি ছুঁড়তে থাকে। দুর্বৃত্তদের গুলিতে রাসেল খান গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নারী ও শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে এনাম মেডিল কেকলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে গিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

আশুলিয়া থানা পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এছাড়াও নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৪৯
প্রিন্ট করুন printer

বিশ্বনাথে হত্যাচেষ্টা-শ্লীলতাহানির অভিযোগে জেলহাজতে যুবক

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি

বিশ্বনাথে হত্যাচেষ্টা-শ্লীলতাহানির
অভিযোগে জেলহাজতে যুবক
ছইফুল

সিলেটের বিশ্বনাথ পৌরসভায় সবজি ক্ষেত থেকে বাছুর তাড়িয়ে দেওয়ায় একটি পরিবারের উপর হামলা ও পরিবারের এক মহিলা সদস্যের শ্লীলতাহানীর অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় শিমুলতলা (নয়াবাড়ী) গ্রামের আবদুস সালামের ছেলে ছইফুল ইসলামকে
(৩২) প্রধান আসামি করে ৫ জনের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার মামলাটি দায়ের করেন একই গ্রামের আবদুল আহাদের ছেলে ছাদিকুর রহমান  সাজুল। মামলার অন্য আসামিরা হলেন ছইফুল ইসলামের ভাই কামরুল ইসলাম (৩৬), বদরুল ইসলাম (৩৪), তাদের পিতা আবদুস সালাম ডুমাই (৬০), বোন আসমা বেগম (২১)।
মামলায় বাদীর অভিযোগ, গত ২৪ জানুয়ারি রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ছইফুল ইসলামের একটি বাছুর আমাদের সবজি ক্ষেতে ঢুকে ফসল নষ্ট করছিল। আমার পিতা বাছুরটিকে সেখান থেকে তাড়িয়ে দিলে ছইফুল তাকে গালাগাল করে। আমার ভাই হাবিবুর রহমান এর প্রতিবাদ করলে ছইফুল, কামরুল, বদরুল, আবদুস সালাম ও আসমা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের ঘরে প্রবেশ করে আমার মা, ভাইবোনদের উপর
হামলা চালায়। তাদের হামলায় আমার আমার মা, বোন ও ভাই হাবিবুর রহমান আহত হন।

এদিকে, মামলা দায়েরের পরদিন বুধবার দুপুরে সিলেটের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ এ হাজির হয়ে ৫ আসামী জামিন আবেদন  করেন। আদালতের বিচারক মাহবুবুর রহমান ৪ জনের জামিন মঞ্জুর করে প্রধান আসামি ছইফুল ইসলামকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাদীপক্ষের আইনজীবী বিশ্বনাথ ঘোষ।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:২৬
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:২৯
প্রিন্ট করুন printer

বাস চালককে জিম্মি করে ছাগল নিয়ে পালানোর চেষ্টা, গ্রেফতার ৩

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

বাস চালককে জিম্মি করে ছাগল নিয়ে পালানোর চেষ্টা, গ্রেফতার ৩
গ্রেফতার তিন ব্যক্তি।

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাস থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ছাগল নিয়ে পালানোর সময় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার ভোরে উপজেলার লাঙ্গলবন্দ এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ভোর সাড়ে ৬টার দিকে কাঁচপুর বাসস্ট্যান্ডে চট্টগ্রাম যাওয়ার কথা বলে একজন নারী ও চারজন পুরুষ রংপুর থেকে ছেড়ে আসা টিএম পরিবহনের একটি বাসে উঠে। বাসটি লাঙ্গলবন্দ এলাকায় পৌঁছালে সুপারভাইজার ও চালককে পিস্তলের ভয় দেখিয়ে তার বাসের বক্সে থাকা ২৭টি ছাগল জোর করে নামাতে শুরু করেন।

এসময় কাঁচপুর হাইওয়ে থানার এএসআই রুবেল শেখের নেতৃত্বে টহল টিম উপস্থিত হতে দেখলে ডাকাতরা ১০টি ছাগল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে ডাকাতদের কাছ থেকে পুলিশের সদস্যরা ৭টি ছাগল উদ্ধার করে। এছাড়া বন্দর থানার টহল পুলিশের সহযোগিতায় ৩ ডাকাতকে আটক করা হয় এবং আরো দুটি ছাগল উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় বন্দর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ডাকাতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী পলাতক আরো দুই সহযোগীকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:১৬
প্রিন্ট করুন printer

ভূরুঙ্গামারীতে ভাঙা সেতুতে দুর্ভোগ চরমে

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি


ভূরুঙ্গামারীতে ভাঙা সেতুতে দুর্ভোগ চরমে

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সেতুটি সংস্কারের উদ্যোগ না নেওয়ায় ভেঙে পড়ে থাকে দীর্ঘদিন সেটি। এ রকম একটি ঝুঁকিপূর্ণ সেতুর ওপর দিয়ে কয়েক হাজার মানুষ চলাচল করে আসছিলেন। কিন্তু কর্তৃপক্ষের নজরদারির অভাবে তা সংস্কার করা হচ্ছিল না। স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল বিভাগের (এলজিইডি) পক্ষ থেকে সরেজমিনে পরিদর্শন করে সেতুটি সংস্কার করার উদ্যোগ নিলেও তা সময়মত  হয়নি।

জানা গেছে, ভূরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়নের ভূরুঙ্গামারী বাগভান্ডার সড়কের পূর্ব বাগভান্ডার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন (বাগভান্ডার- ভূরুঙ্গামারী সড়কে) সেতুটির মাঝে ভেঙ্গে গিয়ে  ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। আর এই ঝুঁকিপূর্ণ সেতুর ওপর দিয়ে ঝুঁকি নিয়েই চলতে থাকে বিভিন্ন যানবাহনসহ এলাকার মানুষজন। অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় ‘ক্ষতিগ্রস্ত সেতু, ভারী যানবাহন চলাচল নিষেধ’ কথাটি লিখে লাল ফিতা টানিয়ে দেয়া হয়েছিল। এ নিয়ে কর্তৃপক্ষের বক্তব্যসহ বাংলাদেশ প্রতিদিনে গত ডিসেম্বরের শুরুতে একটি সংবাদ প্রচারিত হয়। এ সেতুটি অবশেষে গত রবিবার ভেঙ্গে  গিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পুর্ণ অচল হয়ে যায়। চরম দুর্ভোগে পড়ে যান এলাকাবাসীরা। সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রচারিত হবার পরও কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি।

দীর্ঘদিন ধরে এই সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় পড়ে থাকলেও এগিয়ে আসেনি কেউ। উপজেলা সদরের সঙ্গে সংযোগ রক্ষাকারী  এ সেতুর ওপর দিয়ে উপজেলার মইদাম, পাথরডুবি ও বাগভান্ডার বিজিবি ক্যাম্প, ভূরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়নের বাগভান্ডার, খামার পত্রনবীশ, মানিক কাজির কিছু অংশ, ভোটহাট গ্রাম ও ১নং পাথরডুবী ইউনিয়নের ৪টি গ্রামের প্রায় ৩০ হাজার মানুষ এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ শতাধিক শিক্ষার্থী এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করত। বর্তমানে পুরো সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এসব মানুষ। এলাকাবাসীরা কর্তৃপক্ষের কাছে নতুন একটি  সেতু নির্মাণের জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন। ভেঙ্গে পড়া সেতুতে পাশ্ববর্তী ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান এরশাদ নিজ উদ্যোগে পার্শ্ববর্তী জমির মাটি ফেলে দুইপাড়ের মধ্যে সংযোগ ঘটিয়ে জনদুর্ভোগ কমানোর চেষ্টা করছেন বলে জানান।

তিনি জানান, কারো সহযোগিতায় নয় স্বপ্রণোদিত হয়ে নিজ অর্থায়নে  মাটি ভরাট করে হালকা যানবাহন ও জনচলাচলের ব্যবস্থা করছি। এ ব্যাপারে ভূরুঙ্গামারী সদর ইউপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান বলেন, গত ১৫ ডিসেম্বর দায়িত্ব গ্রহণ করেই সেতুটি পুণঃনির্মাণের জন্য কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করি। দ্রুততম সময়ের মধ্যে সংস্কারের ব্যবস্থা করবেন বলে আমাকে আশ্বস্ত করেছেন। উপজেলা প্রকৌশলী এন্তাজুর রহমান জানান, ইতিমধ্যে সেতুটির প্রাক্কলন ব্যয় তৈরি করে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে প্রেরণ করেছি। আশা করছি খুব শীঘ্রই এ সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:৩৫
প্রিন্ট করুন printer

ভেজাল খাদ্য পরিবেশনে লাকসামে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা

লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

ভেজাল খাদ্য পরিবেশনে লাকসামে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা

কুমিল্লার লাকসামে ভেজাল খাদ্য পরিবেশনের দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে অভিযান চালিয়ে পাঁচটি খাবার হোটেলের ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার লাকসাম পৌর শহরের বাইপাস এলাকায় স্থানীয় প্রশাসন এ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানের নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ কে এম সাইফুল আলম।

ভেজাল খাদ্য পরিবেশনের দায়ের লাকসাম বাইপাসে ফরিদ হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের ১০ হাজার, হাজী বিরিয়ানী ২০ হাজার, হাজীর বিরিয়ানি ২০ হাজার, হাজী নান্না বিরানি ২০ হাজার ও স্বদেশ রেস্তোরার ১০ হাজার টাকাসহ মোট ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ কে এম সাইফুল আলম জানান, খাদ্যে পুরাতন ভোজ্য তেল, অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ, বাসি খাবার পরিবেশনের দায়ে পাঁচটি হোটেলকে জরিমানা করা হয়। এখন থেকে মানসম্মত ও ভেজালমুক্ত খাবার পরিবেশন করতে হবে। অন্যথায় খাবার হোটেল সিলগালা করে দেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:২৮
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:২৯
প্রিন্ট করুন printer

রূপগঞ্জে সবজি বিক্রেতার আড়াই লাখ টাকা ছিনতাই

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি:

রূপগঞ্জে সবজি বিক্রেতার আড়াই লাখ টাকা ছিনতাই

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের এশিয়ান বাইপাস সড়কে ইজিবাইকের গতিরোধ করে ৭ সবজি বিক্রেতার আড়াই লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্র। এ সময় ইজিবাইক চালকসহ এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে আহত করে তারা। 

বুধবার ভোরে এশিয়ান বাইপাস সড়কের কুশাবো এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

সবজি বিক্রেতা ফয়সাল আহমেদ জানান, তিনিসহ ৭ সবজি বিক্রেতা উপজেলার পিতলগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা। তারা প্রতিদিন গাউছিয়া পাইকারী সবজি বাজার থেকে মালামাল কিনে এনে স্থানীয় কাঞ্চন বাজারে বিক্রি করেন। প্রতিদিনের মতো তিনিসহ ৭ সবজি ব্যবসায়ী একটি ইজিবাইক নিয়ে সবজি কেনার উদ্দেশ্যে কাঞ্চন থেকে এশিয়ান বাইপাস সড়ক দিয়ে গাউছিয়া যেতে থাকেন। গাড়িটি উপজেলার কুশাবো এলাকায় যাওয়ার পর একটি পিকআপ ভ্যান দিয়ে ৫/৬ ছিনতাইকারী তাদের ইজিবাইকের গতিরোধ করে। ছিনতাইকারীরা ছুরি ও পিস্তল বের করে সকলকে জিম্মি করে সাথে থাকা টাকা পয়সা দিয়ে দিতে বলে। 

এসময় এক ব্যবসায়ী জসিম টাকা নেই জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে ছিনতাইকারীরা তাকে এবং ইজিবাইক চালক সিদ্দিককে ছুরিকাঘাত করে আতংক তৈরী করে। এতে ঘাবড়ে গিয়ে ৭ ব্যবসায়ীর সাথে থাকা নগদ ২ লাখ ৩৫ হাজার টাকা এবং ৫ টি মোবাইল সেট তাদের হাতে তুলে দেয়। পরে গাড়িটি দ্রুত গতিতে রাজধানীর দিকে পালিয়ে যায়। আহত দুজনকে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভুলতা পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) নাজিমউদ্দিন মজুমদার বলেন, এ ব্যাপারে এখনো কোন অভিযোগ কেউ দায়ের করেননি। অভিযোগের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া বাইপাস সড়ক ও মহাসড়কে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর