Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:২৮

নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা; মাদরাসার গেইট পাহারাদার শাকিল কারাগারে

ফেনী প্রতিনিধি

নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা; মাদরাসার গেইট পাহারাদার শাকিল কারাগারে

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনার দিন মাদরাসার গেইট পাহারায় থাকা পলাতক আসামি মহিউদ্দিন শাকিলকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে আসামি শাকিলকে ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দফতর দ্রুব জ্যতি পালের আদালতে তোলা হয়। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। 

বৃহস্পতিবার বিকেলে ফেনী শহরের পূর্ব উকিল পাড়া এলাকার মুন্সী পুকুর পাড় থেকে আটক করে পিবিআই। সে সোনাগাজী উপজেলার উত্তর চরচান্দিয়া গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই’র পরিদর্শক মো. শাহ আলম জানান, নুসরাত হত্যা মামলায় রিমান্ডে থাকা আসামি ও ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিকৃত কয়েক আসামির তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনার দিন মাদরাসার গেইট পাহারায় থাকা পলাতক আসামি মহিউদ্দিন শাকিলকে আটক করেছে পিবিআই। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক ছিল। তাকে আটকের জন্য পিবিআই বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েছিল।

গত ৬ এপ্রিল সকালে মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত আলিমের আরবি পরীক্ষা প্রথম পত্র দিতে মাদরাসায় গেলে দুর্বৃত্তরা তাকে ডেকে কৌশলে মাদরাসার ছাদে নিয়ে যায়। পরে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। দগ্ধ নুসরাত ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল রাতে মারা যায়। পরদিন ১১ এপ্রিল বিকেলে তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে প্রধান আসামি করে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামী করে নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান ৮ এপ্রিল সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করে। আলোচিত এ মামলা এ পর্যন্ত এজহারভূক্ত আট আসামিসহ ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ও পিবিআই। এদের মধ্যে হত্যায় সরাসরি জড়িত ৫ জনসহ ৮ জন আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য