শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি, ২০২০ ১৪:০৭

চকরিয়ায় ঘরে আগুন দিয়ে মাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

চকরিয়ায় ঘরে আগুন দিয়ে মাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পৈত্রিক জমি ভাগ করে না দেয়ায় ঘরে আগুন দিয়ে মাকে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে ছেলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আগুনে পুড়ে সম্পূর্ণ বাড়ি বিধ্বস্ত হলেও প্রাণে বেঁচে যান মা আয়েশা বেগম ও শিশুসহ সাত সদস্য।

বুধবার ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড জমিদার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, ঢেমুশিয়া এলাকার বাসিন্দা মাস্টার সিরাজুল হক মারা যাওয়ার সময় কিছু জমি রেখে যান। উক্ত জমি নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন তার স্ত্রী আয়েশা বেগম। পিতার রেখে যাওয়া জমির ভাগ চায় মাস্টার সিরাজুল হকের ছেলে দিদারুল হক। তবে এখন জমির ভাগ দিতে নারাজ মা। 

বড়ভাই রিদুয়ানুল হক বলেন, আমরা চার ভাই। আমার পিতা মারা যাওয়ার পর তার সমুদয় জমি আমার মায়ের অধীনে রয়েছে। এসব জমি থেকে পাওয়া আয় দিয়ে আমার মায়ের চিকিৎসাসহ যাবতীয় খরচ নির্বাহ করা হয়। 
কিন্তু আমার ছোট ভাই দিদারুল হক জমির ভাগ চায়। মা মারা যাওয়ার পর আমরা এসব জমি ভাগ করে নেয়ার কথা বললেও এসব মানতে নারাজ দিদারুল হক। আমার মা বর্তমানে ছোট ভাই মাস্টার সাইফুল হকের বাড়িতে অবস্থান করেন। তাকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয় তার বাড়ি। 

বাড়ির মালিক মাস্টার সাইফুল হক বলেন আগুনে তার অন্তত ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এর আগে তিনবার তার ঘরে আগুন দেয়া হয়। রাতে আগুন লাগার খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গিয়ে বাড়ির ভিতরে থাকা লোকজনকে উদ্ধার করেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। 

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হাবিবুর রহমান বলেন, আগুনে ঘর পোড়ার খবর পেয়ে সকালে পুলিশ পাঠানো হয়। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য