শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১০:০৩

পাথরঘাটায় তিনদিনের ইজতেমা শুরু

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি

পাথরঘাটায় তিনদিনের ইজতেমা শুরু

আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হলো বরগুনা জেলার ইজতেমা। জেলার ইজতেমা পাথরঘাটা স্টেডিয়াম মাঠে আজ বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। শনিবার আছর নামাজ বাদ আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ ইজতেমা। ইজতেমায় বরগুনার ছয়টি উপজেলা ছাড়াও বিভিন্ন জেলা-উপজেলা ও দেশ-বিদেশের মুসল্লিরা অংশ নেবেন। বিদেশিদের জন্য রয়েছে আলাদা প্যান্ডেল। তাদের জন্যও রাখা হয়েছে আলাদা নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

আয়োজকরা জানান, ইজতেমায় ২০ হাজার মুসুল্লীদের সমাগম ঘটবে। এ বছর এই প্রথম পাথরঘাটায় বৃহৎ পরিসরে ইজতেমা শুরু হয়। এর আগে ১৯৯০ সনে পাথরঘাটা কে. এম. পাইলট সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে ক্ষুদ্র পরিসরে হয়েছিল। এরপর আর হয়নি। এ বছরই জেলা ভিত্তিকে ইজতেমায় পাথরঘাটায় করার সিদ্ধান্ত হয়। 

প্যান্ডেল নির্মাণের জন্য বাঁশের খুঁটি পুঁতে পুরো ময়দান জুড়ে সামিয়ানা টাঙানো হয়েছে। ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি ওজু-গোসল ও টয়লেটসহ প্রয়োজনীয় পানির জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ইজতেমায় অংশগ্রহণকারী পাথরঘাটা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের যুবলীগের সভাপতি রুহুল আমিন ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মো. বায়জিদ মুন্সি বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ আল্লাহর দরবারে বিভিন্ন ফরিয়াদ জানাতে আসছেন। ইজতেমার মাঠের খেদমতে ছিলাম, তিনদিন আমলসহ খেদমতে থাকবো। তিনদিন ইজতেমা শেষে এক চিল্লায় যাবো।  

পাথরঘাটা পৌরসভার মেয়র আনোয়ার হোসেন আকন বলেন, পাথরঘাটায়  প্রথমবারের মতো ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে তাই পৌরসভার পক্ষ থেকে বিদুৎ ও পানির লাইন ফ্রি সংযোগ দেয়া হয়েছে। আশা করছি এখানে দূর-দূরান্ত থেকে যে ধর্মপ্রাণ মুসলি­দের কোনো অসুবিধা হবে না।  

এদিকে পাথরঘাটা পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আগত মুসুল্লিদের জন্য একটি মেডিকেল টিম স্থাপন করেছে এবং প্রতিদিন ১ হাজার লিটার খাবার পানি সরবরাহ করা হচ্ছে, ৭নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোছাফফের হোসেন বাবুলের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে প্রতিদিন ৩ হাজার লিটার খাবার পানি সরবরাহ করা  হচ্ছে। 

ইজতেমায় আসা ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের সুস্থতার দিকে খেয়াল রেখে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে বসানো হয়েছে অস্থায়ী স্বাস্থ্য ক্যাম্প। ফায়ার সার্ভিসের গাড়িসহ একটি টিম সার্বক্ষণিক রয়েছে। সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে সম্পন্ন করতে পাথরঘাটা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে দেওয়া হয়েছে গোটা ইজতেমা মাঠ। 

পাথরঘাটা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহাবুদ্দিন বলেন, পাথরঘাটা থানার পক্ষ থেকে সকল রকমের সহযোগিতা থাকবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য প্রস্তুতি রয়েছে পুলিশ। 

তাবলীগের মুরুব্বি আ. জব্বার গাজী বলেন, ভারতসহ বেশ কয়েকটি রাষ্ট্রের জমায়েত রয়েছে। খুব শান্তিপূর্ণভাবে ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য