শিরোনাম
প্রকাশ : ২ এপ্রিল, ২০২০ ১২:২৫
আপডেট : ২ এপ্রিল, ২০২০ ১২:২৫

নওগাঁয় পুলিশের সঙ্গে পৃথক বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁয় পুলিশের সঙ্গে পৃথক বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২
প্রতীকী ছবি

নওগাঁর আত্রাই ও পত্নীতলায় পুলিশের সাথে পৃথক বন্দুকযুদ্ধে দু্ইজন নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবি, তারা একাধিক হত্যা মামলার আসামি ও নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন সর্বহারা গ্রুপের সক্রিয় সদস্য এবং মাদক ব্যবসায়ী। এসময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করেছে।

আত্রাই থানার ওসি মোসলেম উদ্দীন জানায়, আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাত ৩টার দিকে আত্রাই উপজেলার তিলাবুদুরী এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে যায় তারা। এসময় পুলিসশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে দুষ্কৃতিকারীরা গুলি ছোঁড়ে। পাল্টা গুলি চালায় পুলিশ। এতে মিনহাজুল ওরফে মিন্টু ওরফে শিকদার (৪০) নামে এক হত্যা মামলার আসামি ও সর্বহারার সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়। এসময় অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়। 

তিনি আরও জানান, নিহত শিকদার আত্রাই উপজেলার ভরতেঁতুলিয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। সে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন সর্বহারা গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক হত্যা মামলা রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, গুলি ও হাত বোমা উদ্ধার করেছে।

অপরদিকে, পত্নীতলা থানার ওসি পরিমল কুমার চক্রবর্তী জানায়, উপজেলার দিবর এলাকায় আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে মাদক উদ্ধার করতে গেলে পুলিশের সাথে মাদক চোরাকারবারীদের গোলাগুলি হয়। এ সময় জাহিদুল ইসলাম (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়। এ সময় অন্যান্য মাদক চোরাকারবারিরা পালিয়ে যায়। 

তিনি আরও জানান, পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ জাহিদুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এসময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি সুটারগান, গুলি, হাসুয়া, ৯৮৫ পিচ ইয়ারা উদ্ধার করে। নিহত জাহিদুল পত্নীতলা উপজেলার বালুঘা গ্রামের বাসিন্দা। সে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী।


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য