শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ জুলাই, ২০২০ ২২:১৪

নাটোরে গরুর হাটে দাম মেলেনি পশুর, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে গরুর হাটে দাম মেলেনি পশুর, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

প্রায় সাড়ে ৩ মাস পর আসন্ন কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে নাটোরের হাটগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। রবিবার জেলার বৃহত্তম তেবাড়িয়ায় সাপ্তাহিক গরুর হাট বসলেও মানা হয়নি স্বাস্থ্যবিধি। তবে এবার ঈদের প্রথম হাটে গরুর দাম ছিল অনেক কম।

শনিবার পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা খামারী ও হাট ইজাদারদের সাথে বৈঠকের পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাট পরিচালনার জন্য অনুমতি দেন।

তারই পরিপ্রেক্ষিতে জেলার বৃহত্তম সদর উপজেলার তেবাড়িয়ায় সাপ্তাহিক হাট বসে। সকালে বৃষ্টির কারণে হাটে গবাদি পশু না আসলেও দুপুর থেকে খামারিরা গরু নিয়ে আসেনি হাটে। তবে অন্য বছরের চেয়ে অনেক কম দামে গরু বিক্রি হচ্ছে বলে জানা গেছে।

ন্যায্য দাম না পেয়ে অনেক খামারি গরু ফিরিয়ে নিয়ে যেতে দেখা গেছে। এছাড়া যারা গরু বিক্রি করেছেন তারা প্রতিটি গরুতে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা লোকসান গুণছেন। প্রথম হাটে গরু উঠলেও ছাগল উঠতে দেখা যায়নি এই হাটে। এছাড়া হাটের অধিকাংশ খামারি ও ক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি মানেননি।

তেবাড়িয়া হাট ইজাদার বাবুল হোসেন বাবলু মেম্বার জানান, তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিচালনা করার চেষ্টা করছেন। প্রচণ্ড ভিড়ে কিছুটা স্বাস্থ্যবিধি মানা বিঘ্ন হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, দাম কমের কারণে খামারিরা প্রথম হাটে গরু বিক্রি করেননি। অন্য কোরবানির হাটের তুলনায় আজকের কোরবানির হাটে ১৫ ভাগ গরু বিক্রি হয়নি। তবে কোরবানি ঈদের আগে তেবাড়িয়ায় আরও ৩টি হাট বসবে। আর এই তিনটি হাটে গরুর দাম বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানান
তিনি।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর