শিরোনাম
প্রকাশ : ১ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:৪৫

নিখোঁজের দুইদিন পর অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

নিখোঁজের দুইদিন পর অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার
অটোরিকশা চালক মিনহাজ উদ্দীন

বগুড়ার শেরপুরে ঘাতকের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নিখোঁজ হওয়ার দুইদিন পর অটোরিকশা চালক মিনহাজ উদ্দীনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের জোরগাছা এলাকায় একটি ধানক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এসময় ছিনিয়ে নেওয়া অটোরিকশা উদ্ধার করা হয়।

প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী চলা এই লাশ উদ্ধার অভিযানের নেতৃত্ব দেন জেলার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা। এসময় জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান, শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এস এম আবুল কালাম আজাদসহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

নিহত অটোরিকশা চালক মিনহাজ জেলার ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ি ইউনিয়নের বিশ্বহরিগাছা গ্রামের মোজদার আলীর ছেলে। 

জানা যায়, গত ২৯ সেপ্টেম্বর সকালের দিকে অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হন মিনহাজ উদ্দীন। পরে মিনহাজকে হত্যার পর তার লাশ গুম করে ছিনতাইয়ের নাটক সাজায় রাব্বী হাসান (২৫) নামের এক যুবক। এমনকি নিজেই ৯৯৯-ফোন করে তারা ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে আহত হয়েছেন বলে জানান। একইসঙ্গে চিকিৎসার জন্য শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন তিনি। 

পরবর্তী সময়ে থানায় অভিযোগ করতে যান রাব্বী। কিন্তু তার বক্তব্য ও কর্মকাণ্ড সন্দেহজনক মনে হওয়ায় তাকে আটক করা হয়। রাব্বী হাসান একই উপজেলা ও ইউনিয়নের বোহালগাছা গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান জানান, অটোরিকশা ছিনিয়ে নিতে মিনহাজকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। আগে থেকেই ক্রেতাও ঠিক করে রেখেছিল রাব্বী। আর সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী ২৯ সেপ্টেম্বর সকালের দিকে ভাড়ার কথা বলে তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর ওই অটোরিকশা নিয়ে সারা দিন বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাফেরা করেন তারা। 

একপর্যায়ে রাত নেমে এলে জুসের সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে খাওয়ানো হয় তাকে। তবে বিষয়টি বুঝতে পেরে চালক মিনহাজ রাব্বীর হাতে কামড় দেন। এনিয়ে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। পরে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে তাকে হত্যা করা হয়।

এদিকে, নিহতের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার বিকেলেই বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর