শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ অক্টোবর, ২০২০ ০০:৩১
আপডেট : ২১ অক্টোবর, ২০২০ ০০:৩৭

ময়মনসিংহের ৫ ইউনিয়নের ৪টিতে আওয়ামী লীগের জয়

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

ময়মনসিংহের ৫ ইউনিয়নের ৪টিতে আওয়ামী লীগের জয়

ময়মনসিংহে উৎসবমুখর পরিবেশে সাত উপজেলার নয়টি ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ৫ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান ও চারটিতে ওয়ার্ড সদস্য পদে এ উপ-নির্বাচনে অনুষ্ঠিত হয়। চেয়ারম্যান পদে ৫ ইউনিয়নের চারটিতে নৌকা প্রতীক নিয়ে চারজন পুরুষ প্রার্থী ও একটিতে স্বতন্ত্র নারী প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। বিভিন্ন মেয়াদে এ সকল আসনে পদ শূন্য হওয়ায় এসব ইউনিয়নে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

সূত্র জানায়, জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার ৪ নম্বর বালিয়ান ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নারী স্বতন্ত্র প্রার্থী শামিমা খাতুন (আনারস)-কে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে। মোট ৮ হাজার ৫০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. মিজানুর রহমান পলাশ (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৪ হাজার ৩৯২ ভোট। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটানিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্বতন্ত্র প্রার্থী শামিমা খাতুনকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন। 

নান্দাইল উপজেলার শেরপুর উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন ভূইয়া মিল্টন বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেছেন। এই নির্বাচনে চারজন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেণ। ভোট গণনা শেষে রিটার্নিং কর্মকর্তা কর্তৃক প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায়, আওয়ামী লীগ প্রার্থী নৌকা প্রতীকে ৮৫৯৩ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে বিজয়ি হয়েছেন। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী বজলুর রহমান আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩১৩৩ ভোট। বিষয়টি নিশ্চিত করে নান্দাইল উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফখরুজ্জামান বলেন, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

ফুলপুর উপজেলার ছনধরা ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে ৪৩৬৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মো. আবুল কালাম আজাদ ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ আব্দুস সালাম আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৬২৫ ভোট। এ ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ৭ জন প্রার্থী। বিষয়টি নিশ্চিত করে ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শীতেষ চন্দ্র সরকার।

ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা ৪নং আঠারবাড়ী ইউনিয়ন উপ-নির্বাচনে দলীয় নৌকার প্রতীক জুবের আলম (রুপক) ৪৮৪৫ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি চার প্রার্থী জসীম উদ্দিন পেয়েছেন ৪৬৯৩ ভোট, মিজানুর রহমান মিজান পেয়েছে ৪৬৮৫ ভোট। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেস ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন।

সদর উপজেলায় ৪ নং বোরর চর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক নিয়ে আজিজুল হক ৭৬৫০ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী একেএম আনোয়ার হোসেন আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪১২৫ ভোট। বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক বলেন, সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সুষ্ঠভাবে ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়।

 
বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর