শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:২৭
প্রিন্ট করুন printer

চলন্তবাসে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, চালক ও হেলপার আটক

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

চলন্তবাসে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, চালক ও হেলপার আটক

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে লাকী পরিবহনের একটি চলন্ত বাসে কলেজ পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে বাস চালক রিয়াদ মিয়া (৪৫) ও হেলপার ইব্রাহিম খলিল রুবেলকে (৩৫) আটক করে উত্তম মাধ্যম দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছেন স্থানীয় জনতা। 

আজ রবিবার দুপুরে নবীগঞ্জ শহরের ওসমানী রোডে বাসসহ ওই চালক ও হেলপারকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। আটককৃতরা হলেন- বাস চলক রিয়াদ মিয়া ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার তুজারপুর গ্রামের মজিদ মিয়ার ছেলে ও হেলপার ইব্রাহিম খলিল রুবেল নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ইসাখালি গ্রামের রফিজ উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে নবীগঞ্জ পৌর এলাকার তিমিরপুর গ্রামে বৃন্দাবন সরকারি কলেজের অনার্স ১ম বর্ষে পড়ুয়া এক ছাত্রী কলেজে যাওয়ার উদ্দেশ্যে নবীগঞ্জ-হবিগঞ্জ সড়কের তিমিরপুর এলাকায় দাঁড়িয়ে ছিল। এসময় আজমিরীগঞ্জ-বানিয়াচং-হবিগঞ্জ-ঢাকা সড়কে যাতায়াতকারী ঢাকাগামী যাত্রীবাহী লাকী পরিবহনের বাস তিমিরপুর দাঁড় করিয়ে ওই ছাত্রীকে গাড়িতে উঠায়।

পথিমধ্যে ছাত্রীকে অশ্লীল ভঙ্গিতে নানা ধরনের তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে ও শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। বার বার গাড়ি থেকে নামিয়ে দেয়ার কথা বললেও বাস চালক ও হেলপার বাস না থামিয়ে ঢাকার দিকে অগ্রসর হতে থাকে। একপর্যায়ে নিজেকে রক্ষা করতে চলন্ত বাস থেকে লাফ দেন ওই শিক্ষার্থী। পরে বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি অবগত করেন।

রবিবার দুপুরে নবীগঞ্জ শহরের ওসমানী রোডের আরজু হোটেলের সামনে স্থানীয় জনসাধারণ লাকী পরিবহনের ওই বাসসহ বাস চালক রিয়াদ ও হেলপার রুবেলকে আটক করে। পরে উত্তম-মাধ্যম দিয়ে বাস চালক ও হেলপারকে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয় জনতা।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ডালিম আহমেদ বলেন, শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে বাস চালক ও হেলপারকে আটক করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর