শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ মার্চ, ২০২১ ২০:৩০
আপডেট : ৩০ মার্চ, ২০২১ ২০:৩৫
প্রিন্ট করুন printer

ধুনট থানার ডিএসবিকে মারধর করলো জুয়াড়িরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

ধুনট থানার ডিএসবিকে মারধর করলো জুয়াড়িরা

বগুড়ার ধুনট থানা পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) সদস্য মো. সেলিমকে মারধর করে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে জুয়াড়িরা। সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে ধুনট উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের বেড়েরবাড়ি ও শাজাহানপুরের সীমান্তবর্তী শিমুলতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে দুজনকে আটক করেছে। আটক ব্যক্তিরা হলেন-বেড়েরবাড়ি গ্রামের আলিমুদ্দিনের ছেলে জেল হক ও বাচ্চু মিয়ার ছেলে আবু সাইদ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ধুনট ও শাজাহানপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় প্রতিদিন লক্ষাধিক টাকার জুয়ার আসর পরিচলিত হয়ে আসছে। গত দুই মাস আগে ধুনট থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে কয়েক জুয়াড়িকে আটক করে মামলা দেয়। কিন্তু তারপরও তারা জামিনে বের হয়ে এসে আবারও জুয়ার আসর পরিচালনা করে আসছে।

সোমবার ধুনট থানার ডিএসবি সেলিম মিয়া একাই ওই জুয়ার পয়েন্টে যান। এরপর তিনি মোবাইল ফোনে তাদের জুয়া খেলার ছবি তোলেন এবং ভিডিও ধারণ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে জুয়াড়িরা ডিএসবি সেলিমকে বেদম মারধর করে মোবাইলফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে দৌড়ে পালিয়ে প্রাণে রক্ষা পান ডিএসবি সেলিম।

এ বিষয়ে ডিএসবি সেলিম জানান, সংবাদ পেয়ে গোপনে জুয়াড়িদের তথ্য নিতে গেলে তারা অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে তাকে মারধর করে মোবাইলফোন ছিনিয়ে নিয়েছে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) গাজিউর রহমান জানান, ধুনট ও শাজাহানপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে একটি গ্রুপ জুয়ার আসর পরিচালনা করে আসছে। ইতিপূর্বে কয়েক জুয়াড়িকে আটক করে মামলাও দায়ের করা হয়। কিন্তু তারপরও তারা আবারও সেখানে জুয়ার আসর পরিচালনা করেছে। এই তথ্য নিতে গেলে তারা ডিএসবি সেলিমকে মারধর করে ফোন ছিনিয়ে নেয়।

এ ঘটনায় রাতেই অভিযান চালিয়ে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। পরে ডিএসবি সেলিম বাদী হয়ে ২৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়েছেন বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর