শিরোনাম
প্রকাশ : ১০ এপ্রিল, ২০২১ ১৭:২৭
প্রিন্ট করুন printer

ঝালকাঠিতে হঠাৎ বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠিতে হঠাৎ বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ
Google News

ঝালকাঠি জেলায় করোনা সংক্রমণের সাথে হঠাৎ করে বেড়েছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। ডায়রিয়া ওয়ার্ডে পর্যাপ্ত বেড না থাকায় রোগীদের হাসপাতালের বারান্দায় রেখে চিকিৎসা দিতে বাধ্য হচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্সরা। 

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে আবাসিক চিকিৎসক ডা. জাফর আলী দেওয়ান জানান, হাসপাতালে খাবার স্যালাইনের পাশাপাশি আইভি স্যালাইন, জিংক ট্যাবলেট সহ প্রয়োজনীয় পর্যাপ্ত ওষুধ রয়েছে। হাসপাতালে পূর্বের ২০ বেডের ডায়রিয়া ওয়ার্ডটি করোনা আইসোলিয়েশন ইউনিট করায় মূল হাসপাতালের ভিতরে ১৩ বেড বিশিষ্ট একটি কক্ষে ডায়রিয়া ওয়ার্ড করা হয়েছে। হঠাৎ করে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালের বারান্দায় রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ৪০ জন রোগী ভর্তি হয়েছে এবং ৩ জনকে পর্যাবেক্ষনে রেখে ২-৩ ঘণ্টা রেখে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীদের সিংহভাগই গ্রাম অঞ্চল থেকে আসা রোগী এবং শহরের রোগী যৎসামান্য। ডায়রিয়ার অবস্থা জেলা জুড়ে ৪টি উপজেলায় ছড়িয়ে  রয়েছে এবং ১ সপ্তাহে ৪ শতাধিক রোগী আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। 

স্বাস্থ্য বিভাগের অন্য একটি সূত্রে দাবি করা হয়েছে উপজেলা পর্যায়ে মাঠ কর্মীদের গ্রামাঞ্চলে ভিজিট করার নিয়ম রয়েছে এবং ডায়রিয়া প্রতিরোধে তাদেরকে খাবার স্যালাইন ও জিংক ট্যাবলেট গ্রামের মানুষের মধ্যে বিতরণের কর্মসূচি রয়েছে। কিন্তু মাঠকর্মীদের মধ্যে করোনা পরিস্থিতি ইস্যু নিয়ে তাদের প্রথাগত দায়িত্ব পালন না করায় হঠাৎ করে এই অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল