শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ এপ্রিল, ২০২১ ১৮:২৭
প্রিন্ট করুন printer

দিনাজপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষ; দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ

দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষ; দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ
Google News

দিনাজপুরে জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ পৌর প্যানেল মেয়রকে লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে ফুলবাড়ী থানার ওসিকে অপসারণ এবং দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার ফুলবাড়ীর সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা ও পৌরবাসীর ব্যানারে লকডাউন ভেঙ্গে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মহাসড়কের দুই পাশে শত শত পণ্যবাহী যানবাহন আটকা পড়ে।

পরে দিনাজপুর-গোবিন্ধগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়কের ফুলবাড়ীতে অবরোধ করলে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ফুলবাড়ী সার্কেল) আসাদুজ্জামান, ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিন ও উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিল্টন ঘটনাস্থলে গিয়ে আসামিদের গ্রেফতারের প্রতিশ্রুতি দেয়ায় অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ফুলবাড়ীতে দলীয় কার্যালয় থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে স্থানীয় নিমতলা মোড়ে এসে দিনাজপুর-গোবিন্ধগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করেন তারা। 

অবরোধ চলাকালে ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বেতদিঘী ইউপি চেয়ারম্যান উপাধক্ষ্য আব্দুল কুদ্দুস শাহ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নীরু সামসুন্নাহার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার লিয়াকত আলী, সাবেক ডিপুটি কমান্ডার এছার উদ্দিন, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সাত্তারসহ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

স্থানীয়রা ও পুলিশ জানায়, ফুলবাড়ী পৌর এলাকার পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামের মৃত মোবারক হোসেন শাহ’র ছেলে আজিজার রহমান শাহর সাথে একই এলাকার মৃত মোজাম্মেল হোসেন শাহর ছেলে সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা গেলাম মোস্তফার জমি নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জের ধরে গত বুধবার সকাল ১১টায় শহরের পার্বতীপুর বাসস্ট্যান্ডে আজিজার রহমানের পক্ষে থাকা ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, পৌর প্যানেল মেয়র মামুনুর রশিদ চৌধুরীর সাথে অপরপক্ষ গোলাম মোস্তফার পক্ষে থাকা একই ওয়ার্ডের পৌর নির্বাচনে মামুনুর রশিদ চৌধুরীর প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে শাহেদ ইসলামের বাক-বিতণ্ডা হয়। এসময় উভয় পক্ষের লোকজন এলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়। 

তাদের মধ্যে গুরুতর আহত গোলাম মোস্তফাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আসলাম এবং মমিনুলকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে, এই ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজার রহমান শাহ বাদী হয়ে গত বুধবার রাতে গোলাম মোস্তফা, শাহেদ ইসলামসহ ১০ জনকে আসামি করে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে আসামিদেরকে গ্রেফতার দাবিতে ফুলবাড়ীর সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা ও পৌরবাসীর ব্যানারে এই বিক্ষোভ মিছিল ও মহাসড়ক অবরোধ করা হয়।

ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, প্রথমে আহত দু'জন বুধবার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে চিকিৎসা নিতে আসে। এসময় তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এরপর বিকাল সাড়ে ৪টায় পৌর প্যানেল মেয়র ও পৌর কাউন্সিলর মামুনুর রশিদ চৌধুরীসহ ৪ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।

বিক্ষোভ ও অবরোধে ফুলবাড়ী পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা সবুজ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মুশফিকুর রহমান রিয়াদ, সরকারি কলেজ শাখার সহ-সভাপতি নাসিম মাহমুদসহ পৌর এলাকার প্রায় ৫ শতাধিক নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর