শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ এপ্রিল, ২০২১ ২১:০৫
প্রিন্ট করুন printer

পরকীয়া জেনে ফেলায় স্বামীকে হত্যার চেষ্টা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

পরকীয়া জেনে ফেলায় স্বামীকে হত্যার চেষ্টা

পরকীয়া প্রেমিককে পেতে স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করে পুলিশের খাঁচায় বন্দি হয়েছেন স্ত্রী কাকলী খাতুন (১৮)। হত্যার উদ্দেশ্যে খাবার স্যালাইনের সাথে ঘুমের ওষুধ ও বিষ মিশিয়ে স্বামীকে পান করায় কাকলী। শুক্রবার বিকালে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার সড়াবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্বামী মাসুদ রানা ওরফে মাসুম বর্তমানে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীর আছেন। 

শুক্রবার রাতেই মাসুদ রানার মা মমতাজ বেগম বাদী হয়ে দর্শনা থানায় একটি হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করেন। মাসুদ রানা সড়াবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল কাদের মন্ডলের ছেলে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মাসুদ রানা জানান, নয় মাস আগে জীবননগরের হরিহরনগর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে কাকলীর সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর কাকলী সড়াবাড়িয়া গ্রামের উসমান মোল্লার ছেলে মো. মুকুলের সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি জানতে পেরে স্ত্রী কাকলীকে বকাঝকা করেন তিনি। এরই জেরে শুক্রবার তাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন কাকলী।

মাসুদ রানা আরো জানান, শুক্রবার কৃষিকাজ শেষে বাড়ি ফিরলে তাকে ঘুমের ওষুধ ও বিষ মেশানো খাওয়ার স্যালাইন পান করতে দেন কাকলী। এতে কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়েন মাসুদ রানা। এসময় স্বামীর মৃত্যু নিশ্চিত করতে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধের চেষ্টা করেন কাকলী। স্বামীর সাথে শক্তিতে না পেরে ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করেন। এসময় মাসুদ চিৎকার দিয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে এলে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

দর্শনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহাব্বুর রহমান জানান, স্বামীকে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্ত্রী কাকলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যাচেষ্টার কথা স্বীকারও করেছে। হত্যা মূল পরিকল্পনাকারী পরকীয়া প্রেমিক মুকুলকে আটকের চেষ্টা চলছে।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

এই বিভাগের আরও খবর