শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ মে, ২০২১ ১১:২৪
আপডেট : ৮ মে, ২০২১ ১১:২৪
প্রিন্ট করুন printer

ফেরি চলাচল বন্ধ: দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে আটকা শত শত যানবাহন

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

ফেরি চলাচল বন্ধ: দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে আটকা শত শত যানবাহন
Google News

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার কারণে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া প্রান্তে পারের অপেক্ষায় রয়েছে শত শত যানবাহন। শনিবার (৮ মে) ভোর থেকে পারের অপেক্ষায় রয়েছে এসব যানবাহনের যাত্রী ও চালকেরা। দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ সামাল দিতে গোয়ালন্দ মোড় থেকে যাত্রী ও যানবাহন আটকে দিচ্ছে আহলাদীপুর হাইওয়ে পুলিশ।

শনিবার সকালে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে দেখা যায়, দৌলতদিয়ার ফেরিঘাটের তিনটি পল্টুনে ৯টি ফেরি নোঙ্গর করে রেখেছে কর্তৃপক্ষ। পল্টুন থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক পর্যন্ত হাজার হাজার যাত্রী ও সহস্রাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। আটকে থাকা যানবাহনগুলোর মধ্যে রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স, ব্যক্তিগত প্রাইভেটকার, পণ্যবাহী ট্রাক ও মোটরসাইকেল।

আটকে পড়া মোটরসাইকেল চালক মো. আব্দুল কাদের বলেন, ফরিদপুর থেকে ঢাকায় চাকরির কাজে যেতে হবে। এখানে যারা এসেছে তারা কেউ গুরুত্বপূর্ন কাজ ছাড়া ঢাকায় যাচ্ছে না। প্রশাসনের উচিত কঠোর নজরদারীর মাধ্যমে জরুরি প্রয়োজনে ঢাকামুখী যাত্রী, অ্যাম্বুলেন্স ও পণ্যবাহী পরিবহন পারাপার করা।

অ্যাম্বুলেন্স চালক আসুতোষ সাহা বলেন, ফেরিঘাট কর্তৃপক্ষের উচিত ছিলো শুধুমাত্র পণ্যবাহী ট্রাক ও অ্যাম্বুলেন্স পারাপারের ব্যবস্থা রেখে অন্য ফেরিগুলো বন্ধ রাখা।

আহলাদীপুর হাইওয়ে থানার পুলিশ পরিদর্শক মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, ভোরে সিদ্ধান্ত এসেছে যাত্রী ও যানবাহন আটকে দেওয়ার। সেই সিধান্ত বাস্তবায়ন করার জন্য গোয়ালন্দ মোড় থেকে যাত্রী ও যানবাহনকে আটকে দিচ্ছি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসির) দৌলতদিয়ার উপ মহাব্যবস্থাপক মো. ফিরোজ শেখ বলেন, ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সিধান্তে ফেরি বন্ধের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। কঠোর নজরদারীর মাধ্যমে রাতে পণ্যবাহী পরিবহন ও অ্যাম্বুলেন্স পারাপারের জন্য ফেরি চলাচল শুরু হবে।

 

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর

এই বিভাগের আরও খবর