শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ জুন, ২০২১ ১৩:১৩
আপডেট : ২২ জুন, ২০২১ ১৩:১৭
প্রিন্ট করুন printer

মুন্সীগঞ্জে ১০ চেকপোস্ট, পদ্মায় লঞ্চ বন্ধ থাকলেও চলছে ফেরি

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

মুন্সীগঞ্জে ১০ চেকপোস্ট, পদ্মায় লঞ্চ বন্ধ থাকলেও চলছে ফেরি
Google News

মুন্সীগঞ্জে নয়দিনের লকডাউনকে কেন্দ্র করে জনসাধারণের চলাচল নিয়ন্ত্রনে শিমুলিয়াঘাটসহ জেলার ১০টি পয়েন্টে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে জেলার প্রবেশ পয়েন্টগুলোতে এসব চেকপোস্ট বসানো হয়। 

চেকপোস্ট দিয়ে জেলার ভিতরে বহিরাগতদের প্রবেশ রোধ ও জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বাইরে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। জেলায় বন্ধ রয়েছে শপিংমলসহ লকডাউনের আওতাধীন দোকানপাট ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। 

এদিকে, ভোর থেকে জেলার লৌহজং শিমুলিয়াঘাট হয়ে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে লকডাউনের আওতামুক্ত গাড়ি পারাপারে এ নৌরুটে ফেরি চলাচল করছে। ফেরিতে পণ্যবাহী ও জরুরী গাড়ি ছাড়া কোন যাত্রী পারাপার করা হচ্ছে না। 

এবিষয়ে বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়াঘাটের সহকারি ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) প্রফল্ল চৌহান জানান, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে বর্তমানে ১৪টি ফেরি সচল রয়েছে। সাধারণ যাত্রী পারাপার বন্ধ রয়েছে। ঘাটে গাড়ির চাপ নেই।

বিআইডাব্লিটিএ শিমুলিয়াঘাটের বন্দর কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন জানান, 'ভোর থেকে লঞ্চ চলাচল পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। কোন যাত্রীবাহী লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল করছে না।'

লকডাউনের বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার জানান, 'লকডাউনের সময় নিত্য প্রয়োজনীয় কাঁচামাল ও খাদ্যদ্রব্য ছাড়া অন্যান্য দোকানপাট, শপিংমল বন্ধ থাকবে। জরুরী প্রয়োজনীয় ছাড়া কোন ইঞ্জিনচালিত যান চলবে না।'

তিনি আরও বলেন, জেলার ১০ প্রবেশ পয়েন্টে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চেকপোস্ট থাকবে। কারখানা খোলা রয়েছে, শ্রমিকরা পায়ে হেটে অথবা নিজস্ব উপায়ে কর্মস্থলে যেতে পারবেন। লকডাউন বাস্তবায়নে ম্যাজিস্ট্রেটদের তদারকি থাকবে, কেউ নিয়ম অমান্য করলে ভ্রাম্যমাণ আদলতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

 

বিডি প্রতিদিন/ অন্তরা কবির  

এই বিভাগের আরও খবর