১৯ আগস্ট, ২০২১ ১৮:৪৯

আলফাডাঙ্গায় চাঁদাবাজির মামলায় 'আপেল' গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

আলফাডাঙ্গায় চাঁদাবাজির মামলায় 'আপেল' গ্রেফতার

আরিফুজ্জামান চাকলাদার ওরফে আপেল

আরিফুজ্জামান চাকলাদার ওরফে আপেল একজন পেশাদার চাঁদাবাজ। ব্যবসায়ী, রাজনীতিকসহ বিভিন্ন ব্যক্তিকে নানাভাবে ব্ল্যাকমেইল করে চাঁদাবাজি করাই ছিল তার কাজ। এ থেকে পরিত্রাণ মেলেনি খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষেরও। এসব অভিযোগে অভিযুক্ত আপেলকে গ্রেফতার  করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। উপজেলার বুড়াইচ এলাকার বাসিন্দা মো. বিল্লাল সরদারের করা একটি চাঁদাবাজি মামলার চারজন আসামির মধ্যে আরিফুজ্জামান আপেলও একজন। 

বৃহস্পতিবার আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াহিদুজ্জামান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতার ওই ব্যক্তি চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িত। এ বিষয়ে মামলা হয়েছে। এজাহারে আরিফুজ্জামান চাকলাদার ওরফে আপেল ও মো. লায়েকুজ্জামানসহ চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

এজাহারে বলা হয়, গত ১৩ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় আরিফুজ্জামান চাকলাদার ও মো. লায়েকুজ্জামানসহ চারজন মো. বিল্লাল সরদারের ফুফা আরব আলীর বাড়িতে যান। সাইকেলের শব্দ শুনে বিল্লাল বাইরে এলে আরিফুজ্জামান চাকলাদার ও মো. লায়েকুজ্জামান নিজেদের সাংবাদিক বলে পরিচয় দেয়। তারা আলফাডাঙ্গা থেকে এসেছেন বলে জানান।

আরিফ ও লায়েক জানান, আরব আলী জুয়া খেলা অবস্থায় পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়েছেন। এ বিষয়ে তারা কোনো প্রতিবেদন করেননি। তাদেরকে কিছু টাকা পয়সা দিলে তারা সংবাদ প্রচার থেকে বিরত থাকবেন। এসময় তারা ২০ হাজার টাকা দাবি করেন বলে মামলার এজাহারে জানিয়েছেন মামলার বাদী বিল্লাল সরদার। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে বিল্লালকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেন আরিফুজ্জামান চাকলাদার ও মো. লায়েকুজ্জামান।

পরে এ বিষয়ে কথা কাটাকাটি হলে আশপাশের লোকজন জড়ো হয় এবং আরিফুজ্জামান চাকলাদার ও মো. লায়েকুজ্জামান ও তাদের সঙ্গে আসা বাকি দুজন দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর