১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৮:৫৮

হাঁস খেলায় উপচে পড়া ভিড়

দিনাজপুর প্রতিনিধি

হাঁস খেলায় উপচে পড়া ভিড়

দিনাজপুর অঞ্চলের গ্রামবাংলায় একসময় নানান ধরণের ঐতিহ্যবাহী খেলা ছিল। যা সবাইকে বিনোদন দিত। কিন্তু কালের প্রবাহে অনেক খেলা আজ হারিয়ে যেতে বসেছে। কিন্তু এখনও কিছু খেলা স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন সংগঠন আয়োজন করে মানুষকে বিনোদন দেয়ার জন্যে। এমনই এক ঐতিহ্যবাহী গ্রামবাংলার জনপ্রিয় হাঁস খেলা খানসামায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

রবিবার পাকেরহাট সততা ক্লাবের আয়োজনে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট ভ্যাড়ভ্যাড়ার দিঘীতে গ্রাম বাংলার জনপ্রিয় এ হাঁস খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল থেকে খানসামার ভ্যাড়ভ্যাড়ার দিঘীর চারপাশে এই হাঁস খেলা দেখতে ভীড় জমায় আশে-পাশে এলাকার শত শত বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ।

এস এম রকি, নুরনবীসহ স্থানীয়রা জানায়, এটি গ্রামবাংলার জনপ্রিয় খেলা। ওই বড় দিঘীর পানিতে প্রথমে তিনটি করে হাঁস ছেড়ে দেয়া হয়। প্রতিবার ১০জন করে ওই দিঘীতে নামে হাঁস ধরার জন্য। যে প্রথম ধরতে পারে ওই হাঁসটি তার। ধারাবাহিকভাবে দেড় শ' মানুষ এই হাঁস ধরার খেলায় পানিতে নামে। সাঁতরিয়ে এই হাঁস ধরার খেলা দেখার জন্যে দিঘীর চারপাশে উপচে পড়া মানুষের ভিড় দেখা যায়। নারীদেরও ভিড় লক্ষণীয় ছিল।

রবিবার পাকেরহাট সততা ক্লাবের আয়োজনে এ হাঁস খেলার উদ্বোধন করেন খানসামা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও আংগারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমেদ শাহ। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য শাহাজাহান পাটোয়ারী ও সততা ক্লাবের সদস্যগণ।

এসময় খানসামা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও আংগারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমেদ শাহ বলেন, হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে এবং যুব সমাজকে মাদক ও অপরাধ মুক্ত রাখতে এসব ঐতিহ্যবাহী ও জনপ্রিয় খেলার আয়োজন প্রশংসনীয়।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন
 

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর