২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৪:৫৮

আড়িয়ালখাঁ’র ভাঙনে দিশেহারা বাবুগঞ্জের ছয় গ্রামের মানুষ

রাহাত খান, বরিশাল

আড়িয়ালখাঁ’র ভাঙনে দিশেহারা বাবুগঞ্জের ছয় গ্রামের মানুষ

আড়িয়ালখাঁ নদের ভাঙনে দিশেহারা বরিশালের বাবুগঞ্জের ৬টি গ্রামের মানুষ। দফায় দফায় ভিটেমাটি হারিয়ে নিঃস্ব অনেকে। তারা থাকছেন অন্যের জমিতে, সরকারি রাস্তার পাশে। এখনও অনেকে আছেন ভাঙনের হুমকিতে। দ্রুত ভাঙন প্রতিরোধে ব্যবস্থা নেয়া না হলে আশপাশের শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, ক্লিনিক, হাট-বাজার, বাগান, কৃষি জমি সব কিছু আড়িয়ালখাঁ’র গর্ভে হারিয়ে যাওয়ার আশংকা করছেন স্থানীয়রা। 

ভাঙন প্রতিরোধে কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেও কোনো ফল না পাওয়ার আক্ষেপ করেছেন স্থানীয় ইউপি  চেয়ারম্যান। যদিও বাবুগঞ্জে আড়িয়ালখাঁ নদের ভাঙন প্রতিরোধে একটি প্রকল্প নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ। 

বরিশাল জেলা শহর থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার দূরের বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম লোহালিয়া ঘেঁষে বয়ে গেছে আড়িয়ালখাঁ নদ। এই গ্রামে দিনমজুর-শ্রমিক শ্রেণির বেশিরভাগ মানুষের বসবাস। গত কয়েক বছরে এই গ্রামের অনেক মানুষ নিঃস্ব হয়ে গেছে নদের গ্রাসে। একইভাবে নদের তীরবর্তী সিংহেরকাঠী, গাজীপুর, ভবানীপুর, রফিয়াদী ও আরজি-কালীকাপুর সহ আশপাশের গ্রামের ভূখণ্ড ক্রমেই হারিয়ে যাচ্ছে আড়িয়ালখাঁর গর্ভে। ভাঙনে দিশেহারা মানুষ সব কিছু হারিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন অন্যের জমিতে। কেউ আশ্রয় নিয়েছেন সরকারি রাস্তার পাশে। এখনও ভাঙনের হুমকিতে রয়েছে ওই ৬টি গ্রামের বাড়িঘর, বির্স্তির্ন কৃষি জমি, বাগান, হাটবাজার, শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। 

ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, প্রতি বছরই আড়িয়ালখাঁ নদের ভাঙনে নিঃস্ব হচ্ছে অনেকে। এবার গত দেড়মাস আগে ভাঙন তীব্র হয়। স্থানীয়দের জানমাল রক্ষায় তারা দ্রুত ভাঙন প্রতিরোধ করার দাবি জানিয়েছেন। 

স্থানীয় চাঁদপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান সবুজ বলেন, গত ১০ বছরে আড়িয়ালখাঁ’র ভাঙনে ওই ৬টি গ্রামের শত শত পরিবার নিঃস্ব হয়েছে। এখনও ভাঙনের আতংকে আছেন ৬ গ্রামের বাসিন্দারা। ভাঙন প্রতিরোধে উপজেলা প্রশাসনসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে আবেদন-নিবেদন করেও কোনো ফল পাওয়া যায়নি। আড়িয়ালখাঁ নদের গ্রাস থেকে বাবুগঞ্জের ৬ গ্রামের মানুষের সহায়-সম্পদ রক্ষায় ভাঙন প্রতিরোধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান সবুজ। 

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক রঞ্জন দাশ বলেন, বাবুগঞ্জের চাঁদপাশা ইউনিয়নের ৬টি গ্রামের কৃষিজমি, বাড়ি ঘর, রাস্তা, বাজার ও ফেরীঘাট আড়িয়ালখাঁ নদের ভাঙনে হুমকিতে আছে। পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক এমপি ইতিপূর্বে ওইসব এলাকা পরিদর্শন করে একটি প্রকল্প প্রনয়নের নির্দেশ দিয়েছেন। সে লক্ষ্যে ওইসব এলাকায় ভাঙন প্রতিরোধ এবং নদের তীর সংরক্ষণের জন্য ১ হাজার ১শ’ কোটি টাকার একটি প্রকল্প (ডিপিপি) তৈরি করা হয়েছে। আগামী ১ মাসের মধ্যে ওই প্রকল্প পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হবে। একনেকে প্রকল্প পাশ হলে সরেজমিন ভাঙন প্রতিরোধে কাজ শুরু হবে বলে জানান নির্বাহী প্রকৌশলী।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর