১৬ জুলাই, ২০২২ ২১:০৯

‘শেখ হাসিনা থাকলে দেশ এগিয়ে যাবে, দেশ বাঁচবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

‘শেখ হাসিনা থাকলে দেশ এগিয়ে যাবে, দেশ বাঁচবে’

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এস এম কামাল হোসেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাঁচলে দেশ বাঁচবে, শেখ হাসিনা থাকলে দেশ এগিয়ে যাবে। বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা হতো যদি ক্ষমতায় বিএনপি জামাত থাকতো। ক্লিন হার্ট অপারেশনের নামে তারা ১২৮ জনকে হত্যা করেছে। সে সময় সারা দেশ খুনের নগরীতে পরিণত হয়েছিল। 

শনিবার বিকেলে শহীদ টিটু মিলনায়তনে বগুড়া জেলা কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি।

বগুড়া জেলা কৃষক লীগের সভাপতি মো. আলমগীর বাদশার সভাপতিত্বে সম্মেলনে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সহ সভাপতি ও রাজশাহী বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল লতিফ তারিন। জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জুর সঞ্চালনায় সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক, বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, বগুড়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য মো. হাবিবর রহমান , জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ডা. মকবুল হোসেন, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সহ সভাপতি ও রাজশাহী বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির সদস্য কৃষিবিদ সাখাওয়াত হোসেন সুইট, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী হক, আসাদুজ্জামান বিপ্লব, মৎস্য ও প্রাণি বিষয়ক সম্পাদক কৃষিবিদ শাসছুদ্দিন আল আজাদ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আজমল হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা বিশ্বনাথ সরকার বিটু। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. জাকির হোসেন নবাব, শাহাদাৎ আলম ঝুনু, দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েল, নাসরিন রহমান সিমা, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাশরাফি হিরো, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সুফিয়ান সফিক, সাধারণ সম্পাদক  মাফুজুল ইসলাম রাজ, জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন, সাধারণ সম্পাদক  আমিনুল ইসলাম ডাবলু, জেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক কামরুল মোর্শেদ আপেল, সদস্য সচিব রাকিব উদ্দিন প্রাং সিজার, অ্যাড. লাইজিন আরা লিনা, ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার রহমান শান্ত, জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাজনসহ আরোও অনেক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলন ২৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এতে সভাপতি পদে পুনরায় নির্বাচিত হন আলমগীর  বাদশা ও সাধারণ সম্পাদক পদে নিবাচিত হন মঞ্জুুরুল হক মঞ্জু।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর