২০ আগস্ট, ২০২২ ১৮:৫৩

শিক্ষকের দখলে ছাত্রীনিবাস, মুক্ত করতে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

বাগেরহাট প্রতিনিধি

শিক্ষকের দখলে ছাত্রীনিবাস, মুক্ত করতে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

বাগেরহাটের শরণখোলা সরকারি কলেজের ছাত্রীনিবাস দখলমুক্ত করার দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জন শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা। শনিবার সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে মিছিল ও সমাবেশ করে এ ক্লাস বর্জন কর্মসূচি শুরু করেন তারা। ছাত্রীনিবাস দখলমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত ক্লাস বর্জন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয় শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, শরণখোলা সরকারি কলেজের ছাত্রীনিবাসের একটি ঘর দখলে রেখে বসবাস করছেন ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাব্বির আহম্মেদ মুক্তা। এ কারণে আবাসিক ছাত্রীরা বিব্রত হচ্ছেন এবং নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। কলেজ কর্তৃপক্ষ ছাত্রীনিবাসের ঘর ছেড়ে দেয়ার জন্য একাধিকবার নোটিশ দিলেও কর্ণপাত করছেন না ওই প্রভাবশালী শিক্ষক। এ কারণে তারা ক্লাস বর্জন কর্মসূচি শুরু করেছেন।

এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী নাজমুন নাহার শান্তা, সোনিয়া আক্তার, দীপা রানী, আকরামুল হোসেন জসিম জানান, ছাত্রীনিবাসের মধ্যে একজন শিক্ষক কিভাবে বসবাস করেন সেটা আমাদের বোধগম্য নয়। এতো বলার পরেও তিনি যেহেতু বাসা ছাড়ছেন না তাই আমরা অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস বর্জন কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছি। এ সময় উপজেলা ও কলেজ ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরাও শিক্ষার্থীদের দাবির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ মো. নুরুল আমিন ফকির বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। ওই শিক্ষককে একাধিকবার নোটিশ ও মৌখিকভাবে বলার পরেও তিনি ছাত্রীনিবাসের মধ্যে বসবাস করছেন। এটি শিক্ষকদের জন্য অসম্মানজনক। তার উচিত দ্রুত বাসা ছেড়ে দেয়া।  

জানতে চাইলে অভিযুক্ত শিক্ষক সাব্বির আহম্মেদ মুক্তা বলেন, প্রতিহিংসা বসত আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমার বাড়ির বিল্ডিং-এর কাজ শেষ হলে এমনিতেই বাসা ছেড়ে দেব।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর