৬ অক্টোবর, ২০২২ ২০:০২

শুক্রবার থেকে ২২ দিনের মধ্যে ইলিশ ধরলে হতে পারে ২ বছরের জেল

অনলাইন ডেস্ক

শুক্রবার থেকে ২২ দিনের মধ্যে ইলিশ ধরলে হতে পারে ২ বছরের জেল

ফাইল ছবি

ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ সংরক্ষণের জন্য আজ বৃহস্পতিবার রাত ১২টার পর থেকে ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে ২৮  অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিনের জন্য ইলিশ ধরা বন্ধ থাকবে। এ সময় ইলিশ ধরা, বিক্রি, মজুদ, বাজারজাত ও পরিবহন নিষিদ্ধ থাকবে।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. গোলাম মেহেদী হাসান গণমাধ্যমকে বলেন, ২২ দিনের নিষিদ্ধ সময়ের জন্য সরকার জেলেদের জন্য চাল বরাদ্দ দিয়েছে। গত বছর ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হয়েছে। এ বছর তা বাড়িয়ে ২৫ কেজি করা হয়েছে। জাতীয় সম্পদ ইলিশ রক্ষায় অভয়াশ্রম এলাকায় জেলা ও উপজেলা টাস্কফোর্স নিয়মিত কাজ করবে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কোনো জেলে নদীতে মা ইলিশ আহরণ করলে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অথবা সর্বোচ্চ দুই বছরের কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে।

মাছ ধরা থেকে বিরত থাকা জেলার উপকূলীয় এলাকার ৪৪ হাজার ৩৫ জন নিবন্ধিত জেলের জন্য খাদ্য সহায়তা (বিজিএফ) হিসেবে চাল বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। তবে এ বছর ২০ কেজির স্থলে প্রত্যেক জেলে ২৫ কেজি করে চাল পাবেন। সরকারের এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে জেলা টাস্কফোর্স কমিটি।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে জানা গেছে, জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত পদ্মা ও মেঘনা নদীর প্রায় ৯০ কিলোমিটার এবং লক্ষ্মীপুর জেলার চর আলেকজেন্ডার পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার অভয়াশ্রম ঘোষণা করেছে। চাঁদপুর অংশে দিন ও রাতে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, জেলা মৎস্য বিভাগ, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশ ইলিশ প্রজনন রক্ষায় যৌথ এবং পৃথক অভিযান পরিচালনা করবে।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক

সর্বশেষ খবর