২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ১৮:২৪

গৃহবধূর মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালাল শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

গৃহবধূর মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালাল শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে রুবিনা আক্তার (২৪) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়েছে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে বাবার বাড়ির লোকজন। রুবিনা উপজেলার ভলাকুট ইউনিয়নে খাগালিয়া গ্রামের আক্কাছ মিয়ার মেয়ে ও একই গ্রামের মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী। 

বুধবার সকালে নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। 

নিহতের পরিবার জানায়, ২০১৯ সালে খাগালিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মাহবুবুর রহমানের সাথে বিয়ে হয় রুবিনার। বিয়ের পর থেকেই রুবিনার স্বামী তাকে টাকার জন্য মারধর করত। বিষয়টি কয়েকবার পারিবারিকভাবে মীমাংসাও করা হয়। মঙ্গলবার রাতে স্বামীসহ তাদের বাড়ির লোকজন তাকে মেরে তার মরদেহ নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ফেলে সবাই পালিয়ে যান। পরে তার বাবাকে ফোনে জানানো হয় তার মেয়ে মারা গেছে। তিনি হাসপাতালে গিয়ে দেখেন তার মেয়ের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় দায়ীদের দ্রুত বিচারের দাবী জানায় নিহতের পরিবারের লোকজন। 

নাসিরনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সঞ্জয় কুমার সরকার জানান, এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়েরসহ মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/এএম

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর