শিরোনাম
২০ জানুয়ারি, ২০২৪ ১৫:৫২

দেহ উদ্ধারের একদিন পর মস্তক উদ্ধার

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

দেহ উদ্ধারের একদিন পর মস্তক উদ্ধার

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার ভুট্টা ক্ষেত থেকে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত মস্তকবিহীন এক যুবকের (২৫) মরদেহ উদ্ধারের একদিন পর মস্তক উদ্ধার করছে পুলিশ। এ ছাড়া মরদেহের পরিচয়ও মিলেছে।

এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। হত্যাকাণ্ড ঘটনার তদন্তে (সিআইডি) একটি দল কাজ করছে।

শনিবার দুপুরে উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের দালালপাড়া গ্রামে একটি ডোবা থেকে ওই যুবকের মস্তক উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় একটি ছুরি, মোবাইল ফোন ও একটি জ্যাকেট উদ্ধার করা হয়।

মৃত যুবকের নাম মানিকুল ইসলাম (২৫)। তিনি হাতীবান্ধা উপজেলার সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের ডাঙ্গাটারি গ্রামের আব্দুর ছাত্তারের ছেলে। পেশায় মানিকুল ইসলাম একজন ভ্যানচালক।

এর আগে, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের রমণীগঞ্জ গ্রামের ভুট্টা ক্ষেত থেকে পুলিশ মস্তকবিহীন মরদেহটি উদ্ধার করে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কয়েক দিন আগে সিঙ্গিমারী গ্রামের আবুল কাসেমের ছেলে বাবুলের একটি ভ্যান চুরি হয়। ওই চুরির ঘটনায় মানিকুল ইসলামকে সন্দেহ করে বাবুলের পরিবারের লোকজন। এ ঘটনার পর থেকে মানিকুল নিখোঁজ হয়। তবে ধারণা করা হচ্ছে, ভ্যান চুরির ঘটনার কারণে মানিকুল হত্যার শিকার হতে পারে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের রমনীগঞ্জ গ্রামে ভুট্টা ক্ষেতে ঘাস তুলতে এসে এক নারী মস্তকবিহীন লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজনকে খবর দেন। পরে হাতীবান্ধা থানা থেকে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে।

নিহত মানিকুলের স্ত্রী শাকিলা আক্তার বলেন, বৃহস্পতিবার বিকালে ফোনে তার স্বামীর সাথে কথা হয়। তার স্বামী তাকে জানান, রাত ৮টার মধ্যে বাড়ি এসে কাপড় নিয়ে ঢাকা চলে যাবেন। মোবাইল ফোন পাশে রাখতে বলেন। তিনি বাড়ি আসবেন এটা কাউকে বলার দরকার নেই। কিন্তু রাত ৮টার পর তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, ২৪ ঘণ্টা পর ওই যুবকের ডোবা থেকে মস্তকটি উদ্ধার হয়েছে। হত্যার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর