শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০১৯ ১১:৫২
আপডেট : ১৬ জুন, ২০১৯ ১৫:০১

বড় শাস্তি হতে পারে শ্রীলঙ্কার

অনলাইন ডেস্ক

বড় শাস্তি হতে পারে শ্রীলঙ্কার
ফাইল ছবি

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৮৭ রানের বড় ব্যবধানে হারতে হয়েছে লঙ্কানদের। গতকাল শনিবার (১৫ জুন) অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হারা ম্যাচের শেষে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়নি লঙ্কান দলের পক্ষ থেকে কেউ।

গত কিছুদিন ধরে আইসিসির দিকে বিভিন্ন অভিযোগের তীর ছুড়ছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)।  আইসিসির কাছে অভিযোগ লিখিতভাবে পাঠিয়েও কোনো সমাধান পায়নি লঙ্কান বোর্ড। ধারণা করা হচ্ছে তারই প্রতিবাদ স্বরূপ শনিবার সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলনা শ্রীলঙ্কা। যদিও সংবাদ সম্মেলনে না আসার কারণ সম্পর্কে আনুষ্ঠানিক বা অনানুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানানো হয়নি শ্রীলঙ্কা দলের পক্ষ থেকে। 

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, ম্যাচ শেষে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে যেকোনো দলের পক্ষ থেকে কাউকে আসতে হয়। কিন্তু বিশ্বকাপের মতো আসরে সংবাদ সম্মেলনে কেউ না আসা দলের জন্য বড় শাস্তির কারণ হতে পারে।   

এর আগে শ্রীলঙ্কা বোর্ডের পক্ষে টিম ম্যানেজার আশান্তা দে মেল এক কথায় ক্ষোভ উগড়ে দিলেন আইসিসির প্রতি। তার দাবি, আইসিসি পক্ষপাতমূলক আচরণ করছে।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে তিনি বলেন, ‘আমাদের খেলা চার ম্যাচে কার্ডিফ ও বৃষ্টলে আমরা সবুজ পিচ দেখেছি। একই ভেন্যুতে অন্যন্য দলগুলো ধুসর ও রান তোলার মতো পিচ পেয়েছে। এমনকি ওভালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচেও আমাদের জন্য সবুজ পিচ বানানো হয়েছে। আমাদের অভিযোগকে 'আঙুর ফল টক' ভাবলে ভুল হবে। আইসিসি কোনো নির্দিষ্ট দলের জন্যই একই ধরনের উইকেট বানাবে, আর অন্যদের জন্য আলাদা হবে এটা খুবই দৃষ্টিকটু।’

তিনি জানান, ‘এমনকি কার্ডিফে অনুশীলন সুবিধাও পাইনি আমরা তেমনভাবে। তিনটি নেট থাকার পরেও আমাদের শুধু দুটি দেওয়া হয়েছে। বৃষ্টলে যে হোটেলে রাখা হয়েছে সেখানে নেই সুইমিং পুল। যা সব দলের জন্যই খুব জরুরী। বিশেষ করে ফাস্ট বোলারদের পেশি সতেজ রাখার জন্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ ও পাকিস্তান যে হোটেলে আছে সেখানেও সুইমিং পুলের সুবিধা আছে। আমরা চারদিন আগে আমাদের সমস্যাগুলোর কথা আইসিসিকে জানিয়েছি কিন্তু এখন পর্যন্ত তাদের পক্ষ থেকে কোনো সাড়া পাইনি। উত্তর না পাওয়া পর্যন্ত আমরা আমাদের কথা লিখেই যাবো।’

 

বিডি-প্রতিদিন/ তাফসীর আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য