শিরোনাম
প্রকাশ : ১ জানুয়ারি, ২০২১ ১০:৩৬
আপডেট : ১ জানুয়ারি, ২০২১ ১৩:২৩
প্রিন্ট করুন printer

স্বামীর নামের জায়গায় শাকিবের নাম লিখলেন অপু বিশ্বাস!

অনলাইন ডেস্ক

স্বামীর নামের জায়গায় শাকিবের নাম লিখলেন অপু বিশ্বাস!

শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসের বিচ্ছেদ হয়েছে তিন বছরের বেশি হয়ে গেছে। অথচ সম্প্রতি প্রযোজক সমিতির সদস্যপদ পেতে আবেদনপত্রে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস তার স্বামীর নামের জায়গায় শাকিব খানের নাম লিখেছেন। পরে যাচাই-বাছাইয়ে আটকে যায় অপুর আবেদন। তথ্য সংশোধন করে জমা দেওয়ার পর সদস্যপদ পান তিনি।

প্রযোজক-পরিবেশক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম একটি জাতীয় দৈনিককে জানান, সাধারণত কাউকে চলচ্চিত্রের প্রযোজক হিসেবে নাম নিবন্ধন করতে হলে এক লাখ তিন হাজার টাকা ফি দিতে হয়। কিন্তু কোনো প্রযোজকের স্বামী বা স্ত্রী বা সন্তান হলে তিনি মাত্র ১১ হাজার টাকা ফি দিয়েই এই সদস্যপদ লাভ করার সুযোগটা পেতে পারেন।

শামসুল আলম মনে করেন, এই সুযোগটাই নিতে চেয়েছিলেন অপু।
সন্তান আব্রাম খান জয় এবং নিজের নামের সঙ্গে মিল রেখে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান চালু করেছেন অপু বিশ্বাস। ‘অপু-জয় প্রোডাকশন হাউস’ এর ব্যানারে ‘অভিমান’ নামে একটি ছবির নামও নিবন্ধন করেছেন।

শামসুল আলম বললেন, মাঝে কিছুটা সময় প্রযোজক সমিতির দায়িত্বে একজন প্রশাসক ছিলেন। ওই সময় অপু বিশ্বাস সদস্যপদ চেয়ে আবেদন করেন। অনুমোদন পাওয়ার আগে প্রশাসক বিদায় নেন। আবার কার্যনির্বাহী কমিটি সংগঠনের দায়িত্ব নেয়। এরপর অপু বিশ্বাসের আবেদন ফাইলটি আমরা পাই। আমরা দেখতে পেলাম, নথিতে নিজেকে শাকিব খান রানার স্ত্রী উল্লেখ করেছেন অপু। তিনি এ ও লেখেন, 'প্রযোজকের স্ত্রী হিসেবে আমাকে সুবিধা বিবেচনায় সদস্যপদ দেওয়া হোক।'

তিনি বলেন, এই ধরনের মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে কাউকে সদস্যপদ দেওয়া মানে মিথ্যাকে প্রশ্রয় দেওয়া। এরপর আমরা সবাই অপুর সত্য গোপন করার বিষয়টি মিটিংয়ে আলোচনা করেছি। সবাই একবাক্যে বলেছেন, ১ লাখ ৩ হাজার টাকার বদলে ১১ হাজার টাকায় সদস্যপদের বিশেষ সুবিধা নিতে এমনটা করেছেন তিনি। তাই আবেদনের ফাইলটা স্থগিত করে জানিয়ে দিই, তথ্য সংশোধন করে নতুনভাবে আবেদন করলে আমরা অবশ্যই সদস্যপদ দেব। পরে তিনি স্বামীর নামের জায়গা থেকে শাকিব খানের নাম বাদ দিয়ে আবেদন করেন, আমরাও সদস্যপদ দিই। তাকে এক লাখ তিন হাজার টাকায় সদস্যপদ নিতে হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:১৫
প্রিন্ট করুন printer

গুলি করে লেডি গাগার কুকুর চুরি

অনলাইন ডেস্ক

গুলি করে লেডি গাগার কুকুর চুরি
গাগা প্রায়ই কুকুর নিয়ে শোতে উপস্থিত হতেন। ফাইল ছবি

গুলি চালিয়ে জনপ্রিয় মার্কিন পপ গায়িকা লেডি গাগার দুটি কুকুর চুরি করেছে দুর্বৃত্তরা। গুলিতে আহত হয়েছে কুকুর পালনকারী এক ব্যক্তি। চুরি হওয়া কুকুর দুটির নাম কোজি ও গোস্তাব। এদের উদ্ধারে লেডি গাগা ৫ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছেন। 

স্থানীয় সময় ২৪ ফেব্রুয়ারি রাতে লস অ্যাঞ্জেলের হলিউডে জনপ্রিয় পপ তারকা লেডি গাগার দুটি ফ্রেঞ্চ বুলডগ নিয়ে হাঁটতে বের হন এক রক্ষণাবেক্ষণকারী। তখন এক ব্যক্তি গুলি করে কুকুর দুইটি নিয়ে পালিয়ে যান। গুলিতে আহত হন কুকুর পালনের দায়িত্বে থাকা ওই ব্যক্তি। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা এখন আশঙ্কামুক্ত।

ইতোমধ্যে কুকুর দুটি খুঁজতে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন লস অ্যাঞ্জেলের পুলিশ বিভাগ। কুকুর দুটি কে বা কারা নিয়েছেন, তা এখনও নিশ্চিত নয়।  

পুলিশ জানিয়েছে, কুকুর দুটি নিয়ে তারা একটি সাদা নিশান মডেলের গাড়ি করে পালিয়ে গেছে।  

সূত্র: বিবিসি, সিএনএন

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪১
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪৩
প্রিন্ট করুন printer

বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করল স্পটিফাই

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করল স্পটিফাই

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো নিজেদের যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অডিও স্ট্রিমিং সাবস্ক্রিপশন সার্ভিস স্পটিফাই। ব্যক্তিগত পছন্দ ও জগৎবিখ্যাত সব গানের সমারোহ নিয়ে বাংলাদেশ ছাড়াও পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা-তে আজকের দিনেই অফিশিয়ালি নিজেদের যাত্রা শুরু করছে প্রতিষ্ঠানটি। বিশ্বজুড়ে ১৫৫ মিলিয়ন প্রিমিয়াম সাবস্ক্রাইবার সহ ৩৪৫ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারীদের কাছে জনপ্রিয় এই প্ল্যাটফর্মটি দেশিয় ও আন্তর্জাতিক প্রায় ৭০ মিলিয়নেরও বেশি গানের সমারোহের মধ্য থেকে, শ্রোতাদের তাদের নিজ নিজ পছন্দের গানগুলোকে পার্সোনালাইজড করার সুযোগ দিয়ে থাকে। বিনামূল্যে পাওয়া যাচ্ছে স্পটিফাই-এর সার্ভিস এবং সাথে রয়েছে প্রিমিয়াম সার্ভিসের সুবিধাও যা শ্রোতাকে দিবে বিজ্ঞাপনের বাধা ছাড়াই পছন্দের গান উপভোগের সুযোগ।

বাংলাদেশি ব্যবহারকারীরা প্রতি মাসে মাত্র ১৯৯ টাকা খরচ করেই উপভোগ করতে পারবেন স্পটিফাই প্রিমিয়াম। পারিবারিক (সর্বোচ্চ ৬ জন) ব্যবহারের জন্য মাত্র ৩১৯ টাকায় থাকছে প্রিমিয়াম ফ্যামিলি সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান। একই গৃহে বসবাসরত দুই জনের জন্য স্পটিফাই-এর নতুন আকর্ষণ স্পটিফাই প্রিমিয়াম ডুয়ো পাবেন ২৬০ টাকায়। এই সাবস্ক্রিপশন প্ল্যানের মধ্যে পাবেন ডুয়ো মিক্স সার্ভিস। নিয়মিত আপডেটেড প্লে-লিস্ট সুবিধার মাধ্যমে পছন্দের গান উপভোগ করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের জন্য স্পটিফাই প্রিমিয়াম প্ল্যান থাকছে মাত্র ৯৯ টাকায়।

ফিচারের অতুলনীয় মিশ্রণ এবং বিভিন্ন ডিভাইজ ও অ্যাপের মাধ্যমে বৃহৎ পরিসরে ব্যবহারের সুবিধা নিয়ে বাংলাদেশে পা রেখেছে স্পটিফাই। সংগীতপ্রেমীদের অন্যতম উপভোগ্য বিষয় হয়ে উঠবে স্পটিফাই-এর পার্সোনালাইজড মিউজিক রেকমেন্ডেশন, যার মাধ্যমে দেশি বিদেশি শিল্পীদের গানগুলো ডিসকভার, শেয়ারের ও উপভোগের সুযোগ পাবে ব্যবহারকারীরা।

স্পটিফাই-এর প্রধান ফ্রিমিয়াম বিজনেস কর্মকর্তা অ্যালেক্স নরস্ট্রোম বলেন, “বিশ্বজুড়ে সংগীত নির্মাতা ও শ্রোতাদের একত্রিত করার সুযোগ পেয়ে আমরা সত্যিই ভীষণ আনন্দিত। বিগত বছরগুলোতে আন্তর্জাতিক প্রসার বৃদ্ধির মাধ্যমে ৮ মিলিয়নেরও বেশি শিল্পী ও প্রায় সবকয়টি মহাদেশের শ্রোতাদের একই ছাঁদের নিচে আনতে আমরা সফল হয়েছি। পাশাপাশি স্পটিফাই-কে বৈশ্বিক অডিও ইকোনমির শীর্ষ সঞ্চালক হিসেবে অধিষ্ঠিত করতেও সক্ষম হয়েছি আমরা।” তিনি আরও বলেন, “একটি অপরিসীম অডিও ইকোসিস্টেম গঠনের প্রতিশ্রুতি রক্ষার্থে নতুন বাজারে যাত্রা শুরু করা আমাদের লক্ষ্য পূরণের জন্য একটি মুখ্য পদক্ষেপ।”

স্পটিফাই-এর মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকা’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর ক্লাউডিয়াস বলার বলেন, “সংগীতের নান্দনিকতা সকলের মাঝে পৌঁছে দিতে চাই আমরা। শুধু শ্রোতারাই নয়, পাশাপাশি দেশিয় শিল্পীরাও এখন বিশ্বজুড়ে ভক্তদের কাছে পৌঁছানোর সুযোগ পাবে।” মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ার বাজারে নতুন যাত্রা শুরু করার সুবাদে সংগীত বিশারদদের একটি দলের নেতৃত্ব দিবেন তিনি। সেই প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, “আমরা সবসময় আমাদের ভক্তদের পাশে থাকতে চাই এবং নতুন এই প্রসারণের ফলে আমরা বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার সংগীতের যাদু বিশ্বদরবারে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবো।”

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:২৪
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪৩
প্রিন্ট করুন printer

‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’র এবারের পর্ব সিরাজগঞ্জে

অনলাইন ডেস্ক

‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’র এবারের পর্ব সিরাজগঞ্জে

বিটিভির জেলাভিত্তিক বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান ‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’। শাহজাদপুরের রবীন্দ্র কাচারিবাড়িতে সিরাজগঞ্জের সংস্কৃতি নিয়ে ‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’ র এবারের পর্বটি ধারণ করা হয়েছে।

দেশের ৬৪টি জেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, কৃষ্টি, সংস্কৃতি, মানুষের জীবন-জীবিকা, পোশাক-পরিচ্ছদ, খাবার, ভাষার ভিন্নতা সবকিছুই তুলে ধরা হয় এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। দর্শকরা বিনোদন পাওয়ার পাশাপাশি দেশের প্রতিটি জেলার ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি সম্পর্কেও ধারণা পান।

‘বাংলাদেশের হৃদয় হতে’র এবারের পর্ব সাজানো হয়েছে সিরাজগঞ্জ জেলা নিয়ে। অনুষ্ঠানটির প্রযোজক শাহজামান মিয়া জানান, সিরাজগঞ্জ জেলা, শাহজাদপুর উপজেলার রবীন্দ্র কাচারিবাড়ি, রজনীকান্ত সেন নবরুন মন্দির ও জয়সাগর দীঘিতে অনুষ্ঠানের চিত্র ধারণ করা হয়েছে।

গানগুলোর চিত্রায়ণ করা হয়েছে সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন মনোরম স্থানে। এছাড়াও স্টুডিওতে সংগীত পরিবেশন করেছেন কন্ঠশিল্পী অপু ও অনুপমা মুক্তি। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শাহজাদপুরের কাচারি বাড়িতে বসে ‘ভালবেসো সখি নিভৃতে যতনে’ গানটি রচনা করেন। এখানেই গানটির দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। আর গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন কন্ঠশিল্পী বুলবুল ইসলাম।
 
প্রসঙ্গত, আলিফ চৌধুরী ও নাহিদা আফরোজ সুমির উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি প্রচারিত হবে আজ ২৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাত ১০টা ২০ মিনিটে।


বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির   


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৩:৫৮
প্রিন্ট করুন printer

কঙ্গনার সঙ্গে ইমেল কাণ্ড, হৃত্বিককে তলব মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের

অনলাইন ডেস্ক

কঙ্গনার সঙ্গে ইমেল কাণ্ড, হৃত্বিককে তলব মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের

হৃত্বিক-কঙ্গনার ইমেল কাণ্ডে নয়া মোড়। বলিউড সুপারস্টার হৃত্বিক রোশনকে ডেকে পাঠাল মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের ‘ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিট’। শনিবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টা নাগাদ হৃত্বিককে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। 

২০১৬ সালে ইমেল কাণ্ডে মুম্বাই পুলিশের সাইবার সেলে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন হৃত্বিক রোশন। সেই মামলাতেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং বয়ান রেকর্ড করা হবে।

২০১৬ সালে হৃত্বিক অভিযোগ জানিয়েছিলেন, কেউ বা কারা তার নাম করে কোনও ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে কঙ্গনাকে ইমেল করতেন। যদিও কঙ্গনা রানাউত দাবি করেছিলেন, ওই ইমেল আইডি-টি হৃত্বিক নিজেই ২০১৪ সালে তাকে দিয়েছিলেন। ২০১৩-১৪ সালেও তার ও কঙ্গনার মধ্যে ওই একই আইডি থেকে ইমেল চালাচালি হয়েছিল। ২০১৬ সালে কঙ্গনা হৃত্বিককে ‘Silly Ex’ বলে কটাক্ষ করেন। যাতে অভিনেত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন হৃত্বিক। কঙ্গনার সঙ্গে কোনওরকম সম্পর্কে থাকার কথাও অস্বীকার করেছিলেন তিনি। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই শনিবার অভিনেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখার ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিট।

প্রসঙ্গত, কঙ্গনা-হৃত্বিক একে অপরের সঙ্গে ২০১০ সালে ‘কাইটস’ ২০১৩ সালে ‘কৃশ-৩’ তে অভিনয় করেন। তখনই তাদের মধ্যে সম্পর্কের সূত্রপাত বলে দাবি করেছিলেন কঙ্গনা। হৃত্বিক ২০১৬ সালে অভিযোগ করেছিলেন, কঙ্গনা তাকে ২০১৩-১৪ সালের মধ্যে ১,৪৩৯টি অদ্ভুত ইমেল পাঠিয়েছেন, যাতে তার ওপর মানসিক চাপ তৈরি হয়। যদিও কঙ্গনা তা অস্বীকার করেছিলেন। সেসময় অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির নামে সাইবার সেলে মামলা হয়। সেসময়ই তদন্তের জন্য হৃত্বিকের ফোন, ল্যাপটপ সবকিছু বাজেয়াপ্ত করেছিল সাইবার সেল। পরবর্তীকালে সেই মামলা মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিটে স্থানান্তরিত হয়।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:১৭
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১০:২২
প্রিন্ট করুন printer

প্রথমে বাবার সঙ্গে প্রেম, কয়েক বছর পর ছেলের সঙ্গেও সম্পর্কে জড়ান এই অভিনেত্রী!

অনলাইন ডেস্ক

প্রথমে বাবার সঙ্গে প্রেম, কয়েক বছর পর ছেলের সঙ্গেও সম্পর্কে জড়ান এই অভিনেত্রী!
রেখা

রেখা, বলিউডের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। নিজের সময়ে পর্দা কাঁপানো নায়িকা ছিলেন তিনি। তবে এই রেখা সম্পর্কে বলিউডে বহুবার বহু কথা রটেছে। তাকে এক সময় ‘ঘর ভাঙানি’ বলেও দাগিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কারণ রেখা নাকি বারবারই তার সহ অভিনেতাদের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়তেন।

প্রেম নিয়ে রেখার জীবন বিতর্কে ভরপুর। রেখার সিঁদুর পরা নিয়েও নানা গুঞ্জন শোনা যায়। সে সব নিয়ে নির্বিকার রেখা আপন শর্তেই জীবন কাটিয়েছেন বরাবর।

রেখার বহুল বিতর্কিত প্রেমজীবনের একাংশে রয়েছে এমন একটি সম্পর্ক যা হয়তো অনেকেই জানেন না। অভিযোগ, অতীতের এক প্রথম সারির অভিনেত্রীর স্বামী এবং সন্তানের সঙ্গেও সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন রেখা!

এতে ওই অভিনেত্রী এতটাই বিরক্ত হয়েছিলেন যে এক সাক্ষাৎকারে তাকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি ক্যামেরার সামনেই রেখাকে ‘ডাইনি’ পর্যন্ত বলে বসেন। এ নিয়ে সে সময় ইন্ডাস্ট্রিতে খুব পানিঘোলা হয়েছিল। রেখা কিন্তু এ ক্ষেত্রেও পুরোদস্তুর নির্বিকারই ছিলেন।

ওই অভিনেত্রী ছিলেন নার্গিস। তার স্বামী সুনীল দত্তের সঙ্গে ‘প্রাণ যায় পার বাচন না যায়’, ‘নাগিন’-এর মতো ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছেন রেখা।

সুনীলের সঙ্গে কয়েকটি ছবিতে কাজ করার পরই রেখার নাম জড়াতে শুরু করে তার সঙ্গে। ইন্ডাস্ট্রিতে তাদের দু’জনের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়। যা নার্গিসের কানেও পৌঁছায়।

রেখার বয়স তখন মাত্র ২২ বছর। নার্গিস সংবাদমাধ্যমের সামনেই রেখার প্রসঙ্গ টেনে অত্যন্ত অপমানজনক কথা বলেছিলেন। ‘রেখার মতো মেয়েরা খুব সহজ উপলব্ধ’, ‘রেখার মতো মেয়েদের মানসিক চিকিৎসার প্রয়োজন’— এমন নানা মন্তব্য করেন তিনি।

এ নিয়ে রেখাকেও অনেক প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছিল। কিন্তু রেখার মুখে কখনও কোনও কুমন্তব্য শোনা যায়নি।

এই ঘটনার কয়েক বছর পর আবার রেখার নাম জুড়ে যায় নার্গিস এবং সুনীল দত্তের ছেলে সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে।

১৯৮৪ সালে সঞ্জয়ের সঙ্গে ‘জামিন আসমান’ ছবিতে অভিনয় করেন রেখা। ছবির শ্যুটিংয়ের সময় থেকেই তারা একে অপরের ঘনিষ্ঠ হতে শুরু করেছিলেন।

ছবির মুক্তির পরপরই তাদের সম্পর্ক নিয়েও আলোচনা হতে শুরু করে ইন্ডাস্ট্রিতে। বিষয়টি নার্গিস এবং সুনীলের একেবারেই পছন্দ ছিল না। সঞ্জয়কে নাকি তারা অনেক বুঝিয়েও ছিলেন। কিন্তু সে সময় মা-বাবার কথায় নাকি পাত্তা দেননি সঞ্জয়।

এমনও গুঞ্জন উঠেছিল তারা নাকি পালিয়ে বিয়েও করেছিলেন। রেখার সিঁদুর পরা নিয়ে যে সমস্ত গুঞ্জন শোনা যায় তার মধ্যে অন্যতম হল, রেখা নাকি অমিতাভ বচ্চনের জন্য সিঁদুর পরেন। কিন্তু এক সময় সিঁদুরের নেপথ্যে সঞ্জয়ের নামও উঠে আসতে শুরু করেছিল।

তবে সঞ্জয়ের সঙ্গে নাম জড়ানোর পর তার বাবা সুনীল ছেলের থেকে দূরে থাকার জন্য সতর্ক করেছিলেন রেখাকে। রেখার বাড়ি গিয়ে তিনি সঞ্জয়ের থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে বলেছিলেন। তারপর অবশ্য সঞ্জয় এবং রেখা দু’জনেই সংবাদমাধ্যমের সামনে নিজেদের সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছিলেন।

১৯৮৭ সালে রিচা শর্মাকে বিয়ে করেন সঞ্জয়। ১৯৯৬ সালে মস্তিষ্ক টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় রিচার। তারপর ১৯৯৮ সালে রিয়া পিল্লাইকে বিয়ে করেন তিনি। ১০ বছর পর তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ২০০৮ সালে মান্যতাকে বিয়ে করেন সঞ্জয়। বর্তমানে তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে।

রেখা ১৯৯০ সালে দিল্লির ব্যবসায়ী মুকেশ আগারওয়ালকে বিয়ে করেন। বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যেই তার স্বামী আত্মহত্যা করেন। তারপর থেকে একাই জীবন কাটাচ্ছেন রেখা। সূত্র: আনন্দবাজার

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর