শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২০

রোমাঞ্চের অপেক্ষা শেষ দিনে

মেজবাহ্-উল-হক

রোমাঞ্চের অপেক্ষা শেষ দিনে

গল টেস্টে শেষ দিনে ফল কী হতে যাচ্ছে— ড্র, টাইগারদের জয় কিংবা হার! ম্যাচের এমন পরিস্থিতি— আজ সম্ভাব্য তিনটি ফলের যে কোনোটিই হতে পারে। ম্যাচটি রীতিমতো জমে উঠেছে। শেষ দিনে এখন রোমাঞ্চের অপেক্ষা। গতকাল ৪৫৭ রানের  পাহাড়সম টার্গেট তাড়া করতে নেমে শেষ বিকালে বাংলাদেশ বিনা উইকেটে করেছে ৬৭ রান। টানা দ্বিতীয় ইনিংসে হাফ সেঞ্চুরি করেছেন সৌম্য সরকার। খেলেছেন ৪৭ বলে হার না মানা ৫৩ রানের ইনিংস। ৬ বাউন্ডারির সঙ্গে একটি বিশাল ছক্কা হাঁকিয়েছেন। তামিম ইকবাল ছিলেন খুবই সতর্ক। ৪৪ বল থেকে করেছেন মাত্র ১৩ রান। দুই টাইগার ওপেনার আজ ফ্রেশ মুডে নতুন করে শুরু করবেন। এই ম্যাচে জয়ের জন্য মুশফিকদের করতে হবে আরও ৩৯০ রান। সৃষ্টি করতে হবে নতুন ইতিহাস। টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ ৪১৮ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড রয়েছে। ২০০৩ সালে অ্যান্টিগায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক ওই ম্যাচে জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সে যাই হোক, ক্রিকেট অভিধানে অসম্ভব বলে কিছু নেই! তবে জয়ের চিন্তা করতে গেলে ওভারপ্রতি সাড়ে চার করে রান করতে হবে বাংলাদেশকে। ওয়ানডের মতো ঝুঁকি নিয়ে ব্যাটিং করতে হবে। সেক্ষেত্রে পরাজয়ের শঙ্কাও থাকবে বেশি। কিন্তু সকাল থেকে রক্ষণাত্মক ব্যাটিং করলে এই ম্যাচে ড্র করা খুব কঠিন নয়। যদিও টেস্টে পঞ্চম দিনে ব্যাটিং করা চ্যালেঞ্জিং। কিন্তু মুশফিকের জন্য সুখবর হচ্ছে, গলের উইকেট তেমন ভেঙে যায়নি। বল টার্নও হচ্ছে না তেমন একটা। এখনো পুরোদস্তুর ব্যাটিং সহায়ক উইকেট। তাই সকালের সেশনটা সতর্কভাবে খেলে পরের দুই সেশনে ঝুঁকি নিতেই পারে বাংলাদেশ।

প্রথম ইনিংসেই ১৮২ রানের বড় লিড পেয়েছিল শ্রীলঙ্কা। গতকাল ৬ উইকেটে ২৭৪ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে। সেঞ্চুরি করেছেন উপুল থারাঙ্গা। দীনেশ চান্ডিমাল অপরাজিত হাফ সেঞ্চুরি করে। টি-ব্রেকের পর ঝড়ো গতিতে রান তুলতে থাকেন লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। তবে মাত্র ৫ ওভার ব্যাটিং করেছেন দিনের শেষ সেশনে। মুস্তাফিজের ওভারে চান্ডিমাল অর্ধশত পূরণ করেন এবং শেষ বলে দিলরুয়ান পেরেরা আউট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ইনিংস ঘোষণা করে দেন লঙ্কান দলপতি রঙ্গনা হেরাথ।


আপনার মন্তব্য