Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:৩৪

দ্রুত সমঝোতা চেয়ে আওয়ামী লীগকে চিঠি জাতীয় পার্টির

আসন ভাগাভাগি নিয়ে মহাজোট বসছে কাল

শফিকুল ইসলাম সোহাগ

দ্রুত সমঝোতা চেয়ে আওয়ামী লীগকে চিঠি জাতীয় পার্টির

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে নির্বাচনে অংশ নেবে সাবেক রাষ্ট্রপতি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। নির্বাচনের সময় এগিয়ে আসায় দ্রুত আসন সমঝোতা চায় জাতীয় পার্টি। আসন সমঝোতাসহ নির্বাচনী নানান বিষয়ে আলোচনার জন্য এইচ এম এরশাদের নেতৃত্বে ছোট প্রতিনিধি দল নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করতে চায় জাতীয় পার্টি। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিঠি দিয়েছেন এইচ এম এরশাদ। গতকাল সন্ধ্যায় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায় গণভবনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের       কাছে চিঠি পৌঁছে দেন। জানতে চাইলে সুনীল শুভ রায় বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানান, জাতীয় পার্টি মহাজোটের শরিক দল হিসেবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে। নির্বাচনে আসন সমঝোতাসহ নানান বিষয়ে আলোচনার জন্য এইচ এম এরশাদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি দিয়েছেন। ওই চিঠি গণভবনে পার্টির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। জানা যায়, আওয়ামী লীগের সঙ্গে জাতীয় পার্টির আসন ভাগাভাগি নিয়ে চূড়ান্ত ফয়সালা দ্রুত চান জাপা নীতিনির্ধারকরা। মোট কত আসন জাপাকে ছেড়ে দেওয়া হবে এবং কী কৌশলে হবে, তা ঠিক করতে দুই দলের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে আলোচনায় বসতে চায় জাপা। দল দুটির নীতিনির্ধারণী সূত্রে জানা যায়, আওয়ামী লীগের কাছে জাপা প্রথমদিকে ১০০ আসন চেয়েছে। এ নিয়ে দুই দলের মধ্যে গোপনে আলোচনা চলছে। এর মধ্যে বর্তমান সংসদ সদস্যরাও আছেন। এর বাইরে পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ এবার নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসন নিজের দখলে রাখতে চান। এ জন্য তিনি নিজে এ আসন থেকে লড়বেন। এ ছাড়াও ঢাকায় শক্তিশালী অবস্থান গড়তে চান এরশাদ। এ জন্য ঢাকা-১৭ আসন থেকেও সাবেক এ রাষ্ট্রপতি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। ঢাকা-৪ আসনে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও ঢাকা-৬ আসনে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী ফিরোজ রশীদ বর্তমান সংসদে রয়েছেন। একাদশ সংসদে এদের পাশাপাশি ঢাকা-৯ আসনে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, ঢাকা-৫ আসনে প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আবদুস সবুর আসুদ, ঢাকা-৭ আসনে প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন ও ঢাকা-১৩ আসনে আরেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সফিকুল ইসলাম সেন্টুকে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে পেতে চায় জাতীয় পার্টি। জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী সময় দিলে চূড়ান্তভাবে মহাজোটের কাছে ৭০টি আসন দাবি করবে জাতীয় পার্টি। এ দাবির পাশাপাশি ১২টি মন্ত্রণালয়ও চাইবে। এ ছাড়াও সরকারের সব স্তরে সমানুপাতিক হারে জাতীয় পার্টিকে সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার কথা বলবে। সমঝোতা হওয়া আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী যেন বহাল বা বিদ্রোহী প্রার্থী যেন না থাকে এ বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বলা হবে। আসন ভাগাভাগি নিয়ে মহাজোট বসছে কাল : ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মহাজোটের শরিক দলগুলোর সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে বসছে আগামীকাল। গতকাল রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বৈঠক সূত্র জানায়, প্রায় ৩০০ আসনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। এখন শরিকদের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে আগামীকাল বৈঠক হওয়ার কথা। গতকাল রাতে গণমাধ্যমকে এমন তথ্য জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম ও সংসদীয় বোর্ডের সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ।


আপনার মন্তব্য