শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৪

সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী খাতে গবেষণা প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী খাতে গবেষণা প্রয়োজন

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, দারিদ্র্য দূরীকরণে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতা আরও বাড়ানো হবে। আমরা অধিকাংশ লোককে (উপযুক্ত) সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় নিয়ে আসব। বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী এবং পেনশন প্রকল্পের আওতায় এক-তৃতীয়াংশ লোককে নিয়ে আসা সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। গতকাল রাজধানীতে ‘বাংলাদেশে সার্বজনীন পেনশন প্রকল্প চালু : একটি কাঠামোর সন্ধানে’ শীর্ষক সিপিডি-অক্সফাম ডায়ালগে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, এই বিশাল কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করতে একটি সঠিক হিসাব তৈরি করা প্রয়োজন। এ জন্য সরকারি ও বেসরকারিভাবে ব্যাপক গবেষণারও প্রয়োজন রয়েছে। সিপিডির সম্মানিত ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ এবং বিশ্বব্যাংক ঢাকা অফিসের সাবেক লিড ইকোনমিস্ট ড. জাহিদ হোসেন বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন। সিপিডির অপর ফেলো অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। বাংলাদেশে অক্সফামের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. দীপঙ্কর দত্ত অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য রাখেন। ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, বাংলাদেশ এখন আধুনিক হচ্ছে। মধ্য আয়ের দেশ হচ্ছে। অথচ দেশের এক-চতুর্থাংশ লোক এখনো দারিদ্র্যসীমার নিচে রয়েছে। ফলে এ শ্রেণির লোকদের দারিদ্র্যমুক্ত করতে হবে। তিনি বলেন, অষ্টম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় সবার জন্য অবসর ভাতা চালু করার নির্দেশনা থাকতে পারে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর