শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২৩:২২

বঙ্গবন্ধু বিপিএল উদ্বোধন আজ

সরাসরি দেখাবে নিউজ টোয়েন্টিফোর

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বঙ্গবন্ধু বিপিএল উদ্বোধন আজ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাটনে চাপ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হবে আতশবাজি। ঘোষণা হবে বিপিএলের উদ্বোধন। আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে প্রধানমন্ত্রী আসবেন ঠিক অনুষ্ঠানের মাঝপথে। উদ্বোধন ঘোষণার পরই মঞ্চে পারফর্ম করতে উঠবেন ভারতের জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী সনু নিগম ও কৈলাস খের। এরপর পারফর্ম করবেন বলিউড তারকা জুটি সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ।

-এভাবেই সাজানো হয়েছে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধনীর অনুষ্ঠান সূচি। স্থানীয় শিল্পীদের মধ্যে গান পরিবেশন করবেন ‘ক্লোজ আপ’ এর তারকা শিল্পীরা। দেশীয় শিল্পীদের মধ্যে প্রধান আকর্ষণ নগর বাউলের জেমস। এছাড়া থাকবেন মমতাজ। অনুষ্ঠান শুরু হবে বিকাল চারটায়। তবে দর্শকদের স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে হবে বেলা আড়াইটায়। বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশীয় সংস্কৃতির আদলে কোনো বিশেষ পারফরম্যান্স থাকছে না। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘কালচারাল প্রোগ্রাম বলতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে একটা কনসার্ট। খেলা মাঠে গড়াবে ১১ ডিসেম্বর। ১৭ জানুয়ারি ফাইনাল। তবে ১৮ ডিসেম্বর রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে সদয় অনুমতি দিয়েছেন। তিনি এখানে উপস্থিত থাকবেন এবং উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।’

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ঘিরে মিরপুরে যেন উৎসবের আমেজ। গতকাল বিকালে দেখা যায়, মাঠের এক পাশে মঞ্চ তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছিলেন কেউ কেউ। অন্য পাশে তখন চলছিল নিরাপত্তাবাহিনী মহড়া। সমান তালে চলছিল রিহারসেলও। সবার প্রত্যয় একটাই, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত বিশেষ সংস্করণের বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান যেন সবচেয়ে সেরা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ। বলিউডের এই তারকা জুটি আজ সকালে একটি চাটার্ড বিমানে ঢাকায় এসে পৌঁছাবেন। এরপর দুপুর পর্যন্ত রিহার্সেল করে সন্ধ্যায় পারফর্ম করবেন। সনু নিগম ও কৈলাশ খের আসবেন দুপুরে।  বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতা করবে দেশের শীর্ষ শিল্প প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ। সরাসরি দেখাবে বেসরকারি টিভি চ্যানেল নিউজ টোয়েন্টিফোর। আর বিপিএলের এই বিশেষ আসরের জন্য টাইটেল স্পন্সরশিপের স্বত্ব পেয়েছে স্যাটেলাইট সার্ভিস প্রোভাইডার কোম্পানি আকাশ ডিটিএইচ। গতকাল দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন এ তথ্য জানান। এবারের বিপিএল আয়োজন হচ্ছে সম্পূর্ণ ভিন্ন আঙ্গীকে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এবারের আয়োজনের নামকরণ করা হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। এবারের দলগুলোর মালিকানা কোনো ফ্রাঞ্চাইজির কাছে ছাড়া হয়নি। বিসিবিই তাদের কাছে মালিকানা ধরে রেখেছে। শুধুমাত্র দলগুলোর জন্য স্পন্সর পার্টনার সংগ্রহ করা হয়েছে। তাও ৫টি দলের জন্য। দুটির স্পন্সর বিসিবি নিজেরাই। আকাশ ডিটিএইচ হচ্ছে দেশের প্রথম ডিরেক্ট টু হোম স্যাটেলাইট সার্ভিস প্রোভাইডার কোম্পানি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চ করা হয়েছে মাঠের পূর্ব পাশে। স্টেডিয়ামের সাধারণ গ্যালারি থাকবে মঞ্চের পেছনে। এ কারণে সাধারণ গ্যালারি থাকবে বন্ধ। মঞ্চের ঠিক সামনেই প্রধানমন্ত্রীর বসার জন্য থাকছে বিশেষ ব্যবস্থা। তবে মাঠে বসেও মঞ্চের কাছে থেকে অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারবেন কিছুসংখ্যক সাধারণ দর্শক। এজন্য কাটতে হবে ১০ হাজার টিকিট। এছাড়া ৫ হাজার টিকিটে মাঠে বসে দেখা গেলেও তা পেছনের দিকে। গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড ও ক্লাব হাউস থেকে দেখা যাবে অনুষ্ঠান। তবে গ্যালারির দর্শকদের দেখতে যাতে সমস্যা না হয় এজন্য মাঠেই বসানো হয়েছে ৯টি জায়ান্ট স্ক্রিন।


আপনার মন্তব্য