শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৫ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ মার্চ, ২০২০ ২৩:৫৭

ট্রেন লঞ্চ বিমানসহ সবকিছু বন্ধ

কাল থেকে বন্ধ গণপরিবহন, ফার্মেসি, নিত্যপণ্যের দোকান, মালবাহী ট্রাক কাভার্ডভ্যান সংবাদপত্র পরিবহন চলবে

নিজস্ব প্রতিবেদক

ট্রেন লঞ্চ বিমানসহ সবকিছু বন্ধ
রংপুর জেলা প্রশাসনে বৈঠক শেষে সেনাসদস্যরা

বিশ্বে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে সংক্রমণ রোধে সারা দেশে সবকিছু বন্ধ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ট্রেন, লঞ্চ ও বিমান পরিবহন বন্ধ করা হয়েছে। কাল থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারা দেশে গণপরিবহন বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। আগে থেকে কার্যকর হওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে দেশজুড়ে ওষুধের ফার্মেসি, নিত্যপণ্যের দোকান, পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, সংবাদপত্রসহ জরুরি পরিবহন চলাচল অব্যাহত থাকবে। সরকারিভাবে ১০ দিনের ছুটি ঘোষণার একদিন পর গতকাল সারা দেশে সড়ক, রেল ও নৌপথে যোগাযোগ বন্ধের ঘোষণা দিলেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও দফতর সংশ্লিষ্টরা। করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণ ঠেকাতে গত সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারা দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এর এক দিন পর গণপরিবহন ও লঞ্চের পাশাপাশি ট্রেনেও যাত্রী পরিবহন বন্ধের ঘোষণা দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এবং নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী। দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দফতর থেকে এক ভিডিও বার্তায় সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকার দেশবাসী জনগণ যাত্রীসাধারণ মালিক শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সবার জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছে যে, আগামী ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারা দেশে গণপরিবহন লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, ওষুধ, জরুরি সেবা, জ্বালানি, পচনশীল পণ্যপরিবহন-এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। পণ্যবাহী যানবাহনে কোনো যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। বন্ধ হলো ট্রেন চলাচলও : বিকালে রেল ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম জানান, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী গতকাল সন্ধ্যা থেকে দেশজুড়ে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে। তিনি বলেন, এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হতে হতে বুধবার সন্ধ্যা হয়ে যাবে। এর ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, যে ট্রেন মঙ্গলবার পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসবে সেই ট্রেন বুধবার আবার পঞ্চগড় যাওয়ার পর বন্ধ হবে। এই কারণে লকডাউন হতে একটু সময় লাগবে। তবে আজ সন্ধ্যার পর থেকে পূর্বনির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ী কোনো ট্রেন চলবে না। এ সময় রেলমন্ত্রী জানান, মালবাহী ও তেলবাহী ট্রেন সীমিত পরিসরে চলাচল করবে। চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও খুলনাভিত্তিক ট্রেনগুলো সন্ধ্যার পরে হলেও ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়েই নিজ নিজ গন্তব্যে ফিরে যাবে। সংবাদ সম্মেলনে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, এত ট্রেন আমরা ঢাকায় রাখতে পারব না। এ ছাড়া যেসব ক্রু, অ্যাটেনডেন্ট রাজশাহী বা খুলনার, তাদের ঢাকায় রাখলে তো সমস্যায় পড়ে যাবে। এর আগে সকালে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ নারায়ণগঞ্জ ও জয়দেবপুর ছাড়া অন্যান্য সব রুটে লোকাল, কমিউটার এবং মেইল ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়। তবে আন্তনগর ট্রেন চলতে থাকে এবং কমলাপুরে বাড়িমুখী মানুষের উপচে পড়া ভিড়ও ছিল। সকাল থেকে লঞ্চঘাট ছিল লোকে লোকারণ্য। বিভিন্ন গন্তব্যে যাওয়ার জন্য মানুষ সদরঘাটে ভিড় জমায়। এই অবস্থায় গতকাল দুপুরে নৌ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ঘোষণা দেন, গতকাল সন্ধ্যা থেকে দেশের সব রুটে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।  বিআইডব্লিউটিএ-এর পরিচালক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, পন্টুনে আজ (গতকাল) যতগুলো লঞ্চ ভিড়ে আছে সেগুলো ছাড়ার পরে এ আদেশ কার্যকর হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ : করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে এক বৈঠকে এ সিদ্বান্ত নেওয়া হয়। এ সময় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মুনশী শাহাবুদ্দীন আহমেদসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে মন্ত্রী এ সিদ্ধান্ত জানান। এর আগে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ করা হয়েছিল। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় বন্ধ বাড়ানো হলো। শিক্ষামন্ত্রী বৈঠকে আরও বলেন, এ সময় শিক্ষার্থীরা বাসায় অবস্থান করবে এবং আইইডিসিয়ার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে। এ ছাড়া আগামী ২৮ মার্চ থেকে সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সংসদ টিভির মাধ্যমে ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির ক্লাস সম্প্রচার করা হবে বলে জানান মন্ত্রী। বাউবির এইচএসসিসহ সব পরীক্ষা স্থগিত : আগামী ১৭ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের এইচএসসি পরীক্ষাসহ বিভিন্ন প্রোগ্রামের অনুষ্ঠিতব্য ও চলমান সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিতকৃত পরীক্ষাসমূহের সময়সূচি পরবর্তীতে জানানো হবে। গতকাল বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানান। শেয়ারবাজারও ১০ দিন বন্ধ : দেশের শেয়ারবাজারও ১০ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, সরকার আগামী ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করেছে। সরকারের এ সিদ্ধান্তের সঙ্গে সংগতি রেখে ডিএসইর ট্রেডিং, সেটেলমেন্ট কার্যক্রমসহ সব দাফতরিক কাজ বন্ধ থাকবে।

 


আপনার মন্তব্য