শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১২ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:২৭

করোনায় শীর্ষে ঢাকা নারায়ণগঞ্জ

সিভিল সার্জনসহ আরও তিন চিকিৎসক আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনায় শীর্ষে ঢাকা নারায়ণগঞ্জ

করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮ জন শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ১৪ জনই ঢাকার। আর নারায়ণগঞ্জে রয়েছেন আটজন। আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মারা গেছেন তিনজন। এ নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ৩০ জন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮২ জন। নারায়ণগঞ্জের সিভিল সার্জনসহ আরও তিন চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস-সংক্রান্ত নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য দেন। এ অনলাইন ব্রিফিংয়ে যোগ দেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ এবং আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮ হাজার ৩১৩ জনের। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮২ জন। গতকাল তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৩০ জন। তিনি বলেন, ‘আমরা আরও তিনটি জায়গাকে করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত করছি। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) দুই হাজার শয্যা, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মার্কেটে এক হাজার ৩০০ শয্যা এবং উত্তরার দিয়াবাড়ীতে চারটি বহুতল ভবনে এক হাজার ২০০ শয্যার ব্যবস্থা  করা হচ্ছে। আরও কয়েকটি হাসপাতালকে প্রস্তুতের পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এর মধ্যে আছে মুগদা জেনারেল হাসপাতাল, জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (নিটোর)। ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, আক্রান্ত ৫৮ জনের মধ্যে পুরুষ ৪৮ জন, নারী ১০ জন। সর্বোচ্চ ১৪ জন ঢাকার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আটজন নারায়ণগঞ্জের। সুস্থ হয়ে ফিরে গেছেন তিনজন। মোট সুস্থ হয়ে ফিরে গেছেন ৩৬ জন। সুস্থ হওয়া তিনজনের মধ্যে দুজন পুরুষ এবং একজন নারী। তাদের বয়স যথাক্রমে ২৬, ৫৭ ও ৫৫ বছর। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের একজন ঢাকার, বাকি দুজন ঢাকার বাইরের। তাদের বয়স যথাক্রমে ৩৮, ৫৫ ও ৭৪। আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, ‘আমাদের মোট আক্রান্ত ৪৮২ জনের মধ্যে ৫২ শতাংশই ঢাকা মহানগরীর। মহানগরী বাদ দিয়ে ঢাকা বিভাগে আক্রান্ত ৩৫ শতাংশ। অবশিষ্ট ১৩ শতাংশ দেশের অন্যান্য বিভাগের। আক্রান্ত ৪৮২ জনের মধ্যে ৭০ শতাংশ পুরুষ এবং ৩০ শতাংশ নারী। আক্রান্তদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের ১৯ ভাগ, ৩১ থেকে ৩০ বছরের ২২ ভাগ, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ১৯ ভাগ।’ স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঢাকার মিরপুর, বাসাবো এবং নারায়ণগঞ্জে করোনা আক্রান্তের হার উদ্বেগজনক। নারায়ণগঞ্জ থেকে অনেকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় চলে গেছেন। দেশের বিভিন্ন জায়গায় সকালে বাজারে অনেক বেশি ভিড় হচ্ছে। এতে সংক্রমণ ঝুঁকি বাড়বে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় চিকিৎসকরা একটি সংগঠন তৈরি করেছেন। সংগঠনটির নাম ‘ডক্টরস ফর কভিড-১৯ সল্যুশন-বাংলাদেশ’। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সাইফুল্লাহ বলেন, এ সংগঠনে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ৩০ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রয়েছেন। করোনা আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতালে পৌঁছানো, সেবা দেওয়া, প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শের ব্যবস্থা করা হবে এ সংগঠন থেকে।

সারা দেশ থেকে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইমতিয়াজসহ জেলার আরও তিন চিকিৎসক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নতুন আক্রান্ত অন্য দুজনের একজন শহরের খানপুরের ৩০০ শয্যার নারায়ণগঞ্জ সরকারি হাসপাতালের এবং আরেকজন শহরের বেসরকারি একটি হাসপাতালের এনেসথেশিয়া চিকিৎসক। জেলা করোনাভাইরাস বিষয়ক ফোকাল পারসন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জাহিদুল ইসলাম বলেন, সিভিল সার্জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত হওয়ায় সিভিল সার্জন হিসেবে ঢাকা স্বাস্থ্য বিভাগের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) চৌধুরী ইকবাল বাহারকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে নারায়ণগঞ্জে পাঁচ চিকিৎসক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। এর আগে আরও দুই চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছিলেন। নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে নতুন করে দুজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সায়মা আফরোজ ইভা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নারায়ণগঞ্জ থেকে সারা দেশে করোনাভাইরাসে ছড়িয়ে পড়ছে। লকডাউনের পর ঢাকা থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পালিয়ে বাগেরহাটে আসা একই পরিবারের পাঁচজনসহ ছয়জনকে নেওয়া হয়েছে সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে। বরগুনা সদর জেনারেল হাসপাতালে ঢাকাফেরত ৬০ বছর বয়সী এক রোগীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাতজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। চাঁদপুরে আরও এক যুবক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি নারায়ণগঞ্জে চাকরি করতেন। কুমিল্লায় এক কুস্তিগিরসহ আরও তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর হবিগঞ্জে আক্রান্ত হয়েছেন একজন। তিনি নারায়ণগঞ্জ থেকে হবিগঞ্জে গিয়েছিলেন। গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা আবুল কালাম আজাদসহ ৩৫ জনকে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে। ওই থানায় কর্মরত এক পুলিশ সদস্যের করোনা পজিটিভ হওয়ায় তাদের কোয়ারেন্টাইন করা হয়। জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক বাবুর্চি এবং দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় নারায়ণগঞ্জ-ফেরত দুই নারী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ঝালকাঠিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন একই পরিবারের তিনজন। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি থাকা ছয় মাসের একটি শিশু মারা গেছে। কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে নতুন করে একই পরিবারের তিনজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। লালমনিরহাটে একজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আরও দুই ব্যক্তির দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে মানিকগঞ্জে। ময়মনসিংহে এক শ্রমিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নরসিংদী জেলা হাসপাতালের মালি করোনায় আক্রান্তের পর এবার তার স্ত্রীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নেত্রকোনায় দুজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে ইতালি প্রবাসী মৃত ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। রাজবাড়ীতে পাঁচজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে তথ্য গোপন করে পালিয়ে থাকা করোনায় আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর